× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার

গো-রক্ষকদের হামলা বন্ধে মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস সরকারের বিল পেশ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ জুলাই ২০১৯, শুক্রবার, ৩:৩৩

গো-রক্ষকদের হামলা বন্ধ করতে বিধানসভায় বিল পেশ করল মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সরকার। গত ২৬ জুন, গো-রক্ষার নামে কোনোরকম তা-বে জড়িত থাকলে ৬ মাস থেকে ৩ বছর পর্যন্ত জেল এবং ২৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করার প্রস্তাব উত্থাপন করে সরকার। এর সঙ্গেই গো-হত্যা বন্ধেও উদ্যোগী হয়েছে কমল নাথের সরকার। ২০০৪ সালে মধ্যপ্রদেশের তৎকালীন বিজেপি সরকার গো-হত্যা রুখতে একটি আইন পাশ করে। সম্প্রতি কংগ্রেস পরিচালিত রাজ্য সরকার ওই আইনেরক একটি সংশোধনী গ্রহণ করেছে। এ খবর দিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে।

খবরে বলা হয়, রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব মনোজ শ্রীবাস্তব জানান,  প্রয়োজনে শাস্তির পরিমাণ বেড়ে ৫ বছর পর্যন্ত হতে পারে। বিশেষত, দলবদ্ধভাবে হামলা চালানো এবং একাধিকবার একই অপরাধের ক্ষেত্রে জেলে থাকার মেয়াদ দ্বিগুণ হবে। মারধর, হেনস্থার পাশাপাশি, গো-রক্ষার নামে সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর করলেও তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে বিবেচিত হবে।
প্রসঙ্গত, গত ২২ মে সেওনি জেলার দুন্দাসেওনি পুলিশ স্টেশনের কাছিওয়াড়া গ্রামে একদল লোক গো-রক্ষার নামে এক মহিলা-সহ তিন মুসলিম ব্যক্তিকে বেধরক মারধর করে।
এরপরই এই সংক্রান্ত কঠোর আইন করতে উদ্যোগী হয় সরকার। এর আগে গরু নিয়ে যাওয়ার সময় যাতে কৃষক ও ব্যবসায়ীদের কোনো সমস্যায় পড়তে না হয়, তার জন্য আইন করার কথা ভেবেছিল রাজ্য সরকার। এতে সমর্থন জানিয়েছিল রাজ্যের কৃষক ও সংখ্যালঘু সংগঠনগুলির বড় অংশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর