× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার

চাঁদে যাচ্ছে ভারত!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার, ৯:৫৮

একদিকে নিল আর্মস্ট্রংয়ের চাঁদে অবতরণের ৫০ বছর পূর্তি পালন করছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। অন্যদিকে সেই চাঁদমুখী হচ্ছে ভারত। তারা আগামী ১৪ই আগস্টের মধ্যে চাঁদে নভোতরী পাঠানোর পরিকল্পনা চূড়ান্ত করেছে। এমন যান ৬ই সেপ্টেম্বর নাগাদ চাঁদে অবতরণ করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে শনিবার চন্দ্রযান-২ মিশনের উৎক্ষেপণ রিহার্সেল অনুষ্ঠিত হয়েছে সফলভাবে। এ বিষয়ে ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনের (আইএসআরও) সাবেক চেয়ারম্যান এ এস কিরণ কুমার একটি টুইট করেছেন। তাতে তিনি বলেছেন, ২২শে জুলাই অর্থাৎ আগামীকাল সোমবার চন্দ্রযান-২ মিশন উৎক্ষেপণের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত আইএসআরও। এক্ষেত্রে সফল রিহার্সেল সম্পন্ন হয়েছে শনিবার।
পারফরমেন্স ছিল স্বাভাবিক। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ।

তিনি আরো বলেছেন, চন্দ্রযান-২ সোমবার উড্ডয়নের জন্য প্রস্তুত। আমাদের লক্ষ্য হলো আগামী ১৪ই আগস্ট চাঁদের দিকে যাত্রা শুরু করা। আর ৬ই সেপ্টেম্বরে নাগাদ চাঁদে অবতরণ। সমস্ত কর্মকা- পুরোদমে চলছে। তবে আমরা ২২ শে জুলাইয়ের ইভেন্টের জন্য প্রস্তুত।

এর আগে চন্দ্র অভিযানের মিশন পরিচালনা করার কথা ছিল গত ১৫ই জুলাই সোমবার। কিন্তু যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তা বিলম্বিত করতে বাধ্য হয় আইএসআরও। এ বিষয়ে কথা বলেছেন এ এস কিরণ কুমার। তিনি বলেন,  এই মাত্রার যেকোনো ইস্যুতে আমরা বিভিন্ন দিক থেকে পরীক্ষা করে দেখি। এতে কোনো ত্রুটি দেখা দিলে তা সারিয়ে নিই। এখন আমরা প্রস্তুত।

১৫ই জুলাই সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করার কথা ছিল চন্দ্রযান-২। উড্ডয়নের নির্ধারিত সময়ের এক ঘন্টা আগে এতে যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়ে। ফলে বিলম্বিত হয় উৎক্ষেপণ।  উল্লেখ্য, চন্দ্রযান হলো ভারতের চাঁদ বিষয়ক সবচেয়ে উচ্চাভিলাষী মিশন। জিওসিনক্রোনাস স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিক্যাল-মার্ক ৩ (জিএসএলভি এমকে ৩) রকেট বহন করে নিয়ে যাবে চন্দ্রযান ২। ওই রকেটটিকে ডাকা হয় ‘বাহুবলি’ । চন্দ্রযান ২ পাঠানো হবে চাঁদের দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে। মজার বিষয় হলো চাঁদের এই এলাকায় এর আগে কখনো কোনোই অনুসন্ধান চালানো হয় নি। আইএসআরওর মতে, চন্দ্রযান ২ এমন এলাকায় অবতরণ করবে যা চাঁদের সর্ব দক্ষিণে। এ যাবত ওই এলাকায় কোনো অভিযান পরিচালনা করা হয় নি। এই নভোতরীতে আছে একটি অর্বিটার, একটি ল্যান্ডার ও একটি রোভার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ৯:৪৮

Waiting for tomorrow to see if it is called again in the Last moment or not.

অন্যান্য খবর