× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৫ আগস্ট ২০১৯, রবিবার

পাকিস্তানে নারী জঙ্গির আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ৮

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার, ৫:১৪

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকায় ভয়াবহ আত্মঘাতী বোমা হামলা চালিয়েছে এক নারী জঙ্গি। এতে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৮ জন ও আহত হয়েছেন আরো ২৬ জন। রোববার ডেরা ইসমাইল খান এলাকার একটি হাসপাতালের বাইরে ওই বোমা হামলা চালানো হয়। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

খবরে বলা হয়, ওই এলাকার পাশেই এক পুলিশ চেক পয়েন্টে দুই পুলিশকে হত্যার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই এই আত্মঘাতী হামলাটি চালানো হয়। এর দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি সংগঠন তেহরিক-ই-তালেবান। সংগঠনটি পাকিস্তানি তালেবান হিসেবে খ্যাত। সীমান্তের ওপাশে থাকা তালেবান জঙ্গিদের সঙ্গে তাদের মতাদর্শে মিল রয়েছে।
স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বোরকা পরে হামলা চালায় ওই হামলাকারী।
সে বোরকার নিচে করে বিস্ফোরক (লাদেন জ্যাকেট) লুকিয়ে এনেছিল। পাকিস্তানে নারীদের বোরকা পরা সাধারণ বিষয় হওয়ায় কেউ আলাদা করে তাকে শনাক্ত করতে পারেনি। পুলিশ জানিয়েছে, বিস্ফোরণের ফলে ইমার্জেন্সি ওয়ার্ড ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং সেখানকার রোগীদের অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

তেহরিক-ই-তালেবানের মুখপাত্র মুহাম্মদ খুরাসানি এক বিবৃতিতে এই হামলার দায় স্বীকার করে। এতে বলা হয়, গত মাসে দুই তালেবান নেতাকে হত্যার প্রতিশোধ নিতেই রোববারের হামলা চালানো হয়েছে। উল্লেখ্য, ডেরা ইসমাইল খান পাকিস্তানের সবথেকে রক্ষণশীল এলাকাগুলোর একটি। এখানে প্রায়ই আত্মঘাতী হামলা সংগঠিত হয়ে থাকে। গত এক দশক ধরে পাকিস্তান সেনাবাহিনী এ অঞ্চলে লাগাদার অভিযান পরিচালনা করে যাচ্ছে। চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর সংলগ্ন এই এলাকাকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখা পাকিস্তান সরকারের জন্য গুরুত্বপূর্ন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর