× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার

‘ডেঙ্গু’তে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জনের মৃত্যু

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, হবিগঞ্জ থেকে | ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:৪১

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহাদৎ হোসেন হাজরা। গত রোববার রাত সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওইদিন দুপুরে হবিগঞ্জ উন্নয়ন সভায় অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে তাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিকাল ৪টার দিকে শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা ঢাকায় প্রেরণ করেন। রাত সোয়া ১০টার দিকে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পৌঁছলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল জানিয়েছে, তিনি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন কিনা এ ব্যাপারে তারা নিশ্চিত নন, তবে জ্বরের হিস্ট্রি পাওয়া গেছে।

হবিগঞ্জ সিভিল সার্জন অফিসের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. শাহ আলম জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই ঢাকায় জ্বরে আক্রান্ত ছিলেন সিভিল সার্জন। পরে সুস্থ হলে গত রোববার সকালের দিকে কার্যালয়ে এসে দায়িত্ব পালন করেন।
পরে তিনি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সমন্বয় সভায় অংশ নেন। এ সময় অসুস্থতাবোধ করলে ডা. মো. শাহাদৎ হোসেন হাজরা সেখান থেকে চলে আসেন। এরপর তাকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
মো. শাহ আলম আরো জানান, শনিবার হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শনে এলে ডা. মো. শাহাদৎ হোসেন হাজরা সেখানেও মেডিকেল টিমে দায়িত্ব পালন করেন।

গত ৯ই জুলাই পদোন্নতি পেয়ে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন হিসেবে যোগদান করেন তিনি। যোগদানের ১৩ দিনের মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধানকে হারিয়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে। হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মিঠুন রায় জানান, মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ও এক ছেলে এবং এক কন্যা সন্তান রেখে গেছেন। তার গ্রামের বাড়ি পিরোজপুর জেলায়। মৃত্যুকালে ডা. হাজরার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর