× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার
আলাপন

‘শুধু নিজেরটা ভাবলেতো হবে না’

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ২৩ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:৪১

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর নিজের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অনেক শ্রোতাপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন। অডিও এবং চলচ্চিত্র- এই দুই ধারাতেই তিনি সফল। সংগীতে অনেকটা পথ পাড়ি দিয়েছেন। কিন্তু এতটুকু ক্লান্ত নন এ শিল্পী। বরং আগের চেয়ে নতুন উদ্যমে বেশি কাজ করছেন। আগে কেবল অডিওতে পাওয়া গেলেও এখন ভিডিওতেও তিনি সরব। নিজের গানে নিজেই পারফর্ম করছেন। এক্ষেত্রে কারিশমাও দেখিয়ে যাচ্ছেন একের পর এক।
তার পারফর্ম করা গানগুলো শ্রোতারা আরো বেশি সাদরে গ্রহণ করছেন। সব মিলিয়ে এখন তুমুল ব্যস্ত আসিফ। এহেন ব্যস্ততার মধ্যেই মানবজমিনের আলাপনে কথা বলেছেন তিনি। প্রথমেই তার কাছ থেকে জানতে চাওয়া, কেমন আছেন? আসিফ বলেন, বেশ ভালো। ব্যাপক ব্যস্ততা যাচ্ছে। তবে ব্যস্ত থাকলেই আমি ভালো থাকি। ব্যস্ততা কি নিয়ে এখন? আসিফ বলেন, আমি কদিন আগে খানিক অসুস্থ ছিলাম। কিন্তু হাতে ছিল টানা কাজ।

বিভিন্ন অডিও কোম্পানিকে সঠিক সময়ে গান না দিতে পারলে তারাও ক্ষতির সম্মুখীন হবে। তাছাড়া শুটিংকে কেন্দ্র করে অনেকের রুটি-রুজি চলে। তাই অসুস্থতা নিয়েই কাজে নেমে পড়ি। শুধু নিজেরটা ভাবলেতো হবে না। এখন রেকর্ডিং ও শুটিং নিয়ে সময় কাটছে আমার। আল্লাহর রহমতে ভালো ভাবে সব কিছু হচ্ছে। আসছে ঈদের গান সম্পর্কে বলুন। উত্তরে আসিফ বলেন, ঈদের অনেক গানের কাজ শেষ করেছি। এখন সেগুলোর শুটিং করছি। আমার আর্ব এন্টারটেইনমেন্ট থেকে কিছু গান আসবে ঈদে। আবার বিভিন্ন কোম্পানি থেকেও আসবে বেশ কিছু গান। এসব গানেও তো ভিন্নভাবে নানারূপে উপস্থাপিত হচ্ছেন? আসিফ বলেন, এসব কোম্পানির চাহিদা। পরিচালকরা সেই সুযোগটাই নিচ্ছেন। তারাই আমাকে যেমন ইচ্ছে তেমন ভাবে উপস্থাপন করছেন। আমিও তাদের কথামতো কাজ করে যাচ্ছি। ভালো লাগে এসব গানে আমার পারফরম্যান্স নিয়ে যখন ভক্তদের মাঝে উন্মাদনা দেখি।

এবার ঈদের বিভিন্ন গানেও বিভিন্ন ভাবে আমাকে উপস্থাপন করা হয়েছে। বিভিন্ন লুকে হাজির হবো। আমার বিশ্বাস এগুলো সবাইকে আনন্দ দেবে। আপনার দৃষ্টিতে এখন মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন? আসিফ বলেন, এখন তো অবস্থা ভালো। বিভিন্ন কোম্পানি গানে বিনিয়োগ করছে। কারো কাজ কম, কারো বেশি। কিন্তু পরিস্থিতি যাই হোক, কাজ করে যেতে হবে। থেমে থাকলে চলবে না। আমি কাজের মানুষ,  কাজ করতে ভালো লাগে। আর এটা বিশ্বায়নের যুগ, থেমে থাকলে পিছিয়ে পড়তে হবে। আমি সিনিয়র ও চলতি প্রজন্মকে নিয়মিত গান করে যাওয়ার  অনুরোধ করবো। আর এখন তো কোম্পানির বাইরে নিজেরাও নিজেদের গান প্রকাশ করতে পারেন। চলতি সময়ের শিল্পীরা কেমন করছে বলে মনে হয়? আসিফ বলেন, অনেকে খুব ভালো করছে।

মেধাবী শিল্পী, সুরকার ও গীতিকার রয়েছেন আমাদের। তারা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরো ভালো করবে বলেই বিশ্বাস। আপনি গানের বাইরেও নানা অসংগতি ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সরাসরি প্রতিবাদ করে আসছেন।  এ বিষয়ে কিছু বলার আছে? আসিফ বলেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলাটা স্বাভাবিক ব্যাপার। এটা প্রতিটি মানুষের করা উচিত। আমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করি, সামনেও করবো। এটাই আমার চরিত্র। এটা মানুষ হিসেবে আমার দায়িত্বও বটে। এটা যদি মানুষকে বিন্দুমাত্র ইন্সপায়ার করে সেটাই আমার পাওয়া।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর