× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ভুটানের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ

দেশ বিদেশ

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ৮ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:৪৮

 ঢাকাস্থ ভুটানের রাষ্ট্রদূত সোনাম তোবদেন রাবগিয়ে বিদায় নিচ্ছেন। গতকাল বঙ্গভবনে প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ করেছেন তিনি। সেই সাক্ষাৎ-বৈঠকে প্রেসিডেন্ট হামিদ দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্য খুঁজে দেখা এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। প্রেসিডেন্টের সচিব জয়নাল আবেদীন বৈঠক শেষে বাসস’কে জানান, প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ ও ভুটানের ব্যবসায়ী এবং বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সফর বিনিময়ের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। প্রেসিডেন্ট হামিদ বাংলাদেশ এবং ভুটানের মধ্যকার ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন, দু’দেশের মধ্যকার সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময়ে দু’দেশের মধ্যে এই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের শুভ সূচনা হয়। প্রেসিডেন্ট ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের পর একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতিদানকারী দেশ হিসেবে ভুটান সরকার এবং সেদেশের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। আবদুল হামিদ বলেন, বাংলাদেশ ও ভুটান বিদ্যুৎসহ কয়েকটি সেক্টরে উন্নয়নের জন্য একসঙ্গে কাজ করছে।
তিনি সফল ভাবে দায়িত্ব পালন করায় ভুটানের রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান। ভুটানের দূত বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে তার দেশটির দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বিগত তিন বছরে এই সম্পর্ক আরো জোরদার হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। ভুটানের দূত ঢাকায় তার দায়িত্ব পালনকালে সব ধরনের আন্তরিক সহযোগিতা পাওয়ায় প্রেসিডেন্টের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্টের সংশ্লিষ্ট সচিবগন উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর