× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

মেহবুবা মুফতি, ওমর আবদুল্লাহকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান মমতার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৮ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৪:০৩

জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক দুই মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহ সন্ত্রাসী নন। তাই গণতন্ত্রের স্বার্থে তাদেরকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি মঙ্গলবার এনডিটিভিকে এ কথা বলেন। ওইদিন তিনি এ কথাও জানান যে, তার দল তৃণমূল কংগ্রেস জম্মু ও কাশ্মীর রিকনসিলিয়েশন বিলের বিরুদ্ধে কড়া প্রতিবাদ জানাবে। এ বিষয়ে সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করার সিদ্ধান্তে যাওয়ার আগে সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের আলোচনা করা উচিত ছিল বলে মন্তব্য করেন মমতা। সরকারের এমন সিদ্ধান্ত গণতান্ত্রিক নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তার ভাষায়, আমরা এর আপাদমস্তক বিরোধিতা করবো। মমতা ওইদিন চেন্নাই যাওয়ার আগে কলকাতায় নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।


সোমবার লোকসভায় জম্মু ও কাশ্মীরকে দুটি ইউনিয়ন টেরিটোরি করার বিল উত্থাপন করেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন ৩৭০ ধারাও বাতিল করা হয়।

রাজ্যসভায় এ বিলের ওপর ভোটের সময় ওয়াকআউট করে মমতার তৃণমূল কংগ্রেস পার্টির সদস্যরা। এ বিষয়ে মমতা বলেছেন, এর অর্থ নয় যে তার দল ওই বিল পাসের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে। মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহকে গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ফারুক আবদুল্লাহজির মতো সিনিয়র নেতাদের বিষয়ে আমাদের কাছে কোনো তথ্য নেই। কিন্তু মিডিয়ার খবরে দেখতে পেয়েছি মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমি সরকারের কাছে অনুরোধ ও আবেদন জানাই যে, তারাও কাশ্মীরি। আমাদের ভাই ও বোন। তাদেরকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা উচিত নয়।

ওদিকে বিজেপির সিনিয়র নেতা ও দিল্লির সাবেক উপমুখ্যমন্ত্রী  নির্মল সিং বলেছেন, সাবেক ওই দুই মুখ্যমন্ত্রী শ্রীনগরে সরকারি স্থাপনায় ‘সাত-তারা’ সুযোগ সুবিধা সম্বলিত স্থানে অবস্থান করছেন।  তাদেরকে গ্রেপ্তার করা প্রসঙ্গে তিনি এনডিটিভি’কে বলেছেন, তাদেরকে গ্রেপ্তার করা খুবই প্রয়োজন ছিল। কারণ কেউই জানতো না এক বা দু’দিনের মধ্যে কি ঘটতে যাচ্ছে। তিনি মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহর দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, এসব মানুষ বিশৃংখলা সৃষ্টি করে। জনগণকে উস্কে দেয়। এর মধ্য দিয়ে তারা শান্তি ভঙ্গের চেষ্টা করে। তাদের কর্মকান্ড সম্পর্কে সরকারের কাছে তথ্য ছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর