× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত- ওবায়দুল কাদের

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৮:২৬

ঈদের সময় যাতে ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে না যায় সে বিষয়ে সরকার ও দলের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। একইসঙ্গে ঈদে ঘরমুখো মানুষের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হলে তা কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না বলে জানান। গতকাল রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে মোবাইল কোর্ট কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের সময় যাতে ডেঙ্গু পরিস্থিতি জটিল না হয়, যাতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে না যায় এবং যাতে মানুষের আতঙ্ক দূর করা যায় সে ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে, দলের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তিনি বলেন, আমরা সর্বাত্মকভাবে, আমাদের সব ডিপার্টমেন্ট এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সবাই প্রস্তুত। প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পরই প্রস্তুতিমূলক কর্মতৎপরতা আরো জোরদার হয়েছে। আরো জোরদার হবে যাতে করে মানুষকে স্বস্তি দেয়া যায়। ভয়াবহ এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় সর্বক্ষেত্রে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।


আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ওষুধ এরই মধ্যে এসে গেছে এবং ওষুধ ছিটানোর কাজটা শুরু হচ্ছে। গাজীপুর সিটি করপোরেশন অনেক পৌরসভাকে ওষুধ সরবরাহ করছে। মেয়র অনেক ওষুধ সিঙ্গাপুর থেকে এনেছেন। ঢাকা সিটিরও ওষুধ আসতে শুরু করেছে। তিনি বলেন, আমি মনে করি, সচেতনতা, সাবধানতা এবং সঙ্গে সঙ্গে যে কার্যকর ওষুধ আমরা প্রয়োগ করবো এবং তাতে করে ডেঙ্গু পরিস্থিতি আস্তে আস্তে নিয়ন্ত্রণে আসবে। এটা এখনো নিয়ন্ত্রণে এসেছে এ কথা আমি দাবি করতে পারবো না। এসময় ঈদে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়কারীদের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, অতিরিক্ত ভাড়া কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না। অতিরিক্ত ভাড়া নিলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, বিআরটিসির বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার অভিযোগ এসেছে। তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিআরটিসিকে আলাদাভাবে শাস্তি থেকে রেহাই দেয় হবে না। রাস্তা-ঘাটে চাঁদাবাজি না হয় সে বিষয়ে পুলিশ সতর্ক অবস্থায় আছে বলে জানান তিনি। এবারের ঈদযাত্রা আরও স্বস্তিদায়ক হবে আশা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ঈদযাত্রায় হাইওয়েতে কোনো সমস্যা নাই, সমস্যা হচ্ছে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে। পদ্মার মাওয়া থেকে জাজিরা প্রান্তে প্রচন্ড স্রোত রয়েছে। স্রোতের কারণে ফেরি চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। এজন্য এখানে বাস টার্মিনালে অনেকে এখন গাড়ি পাচ্ছেন না। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার আবহাওয়া বৈরী ছিল,ভারী বৃষ্টি ছিল। শুক্রবার ঈদযাত্রা অনেকটা স্বস্তিদায়ক আছে। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া ভারী বর্ষণ বাধা হয়ে না দাঁড়ালে এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
kabir
১০ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৯:৫৫

Please declare Emergency on Dengue

অন্যান্য খবর