× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৯ আগস্ট ২০২০, রবিবার

ঢাকায় ডেঙ্গুতে প্রাণ গেল দুই শিশুর

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৮:৩৪

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। গতকালও ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে দুই শিশু। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফাত ও ইউনাইটেড হাসপাতালে মেহরাজ হাসান নামে দুই শিশুর মৃত্যু হয়। রিফাতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, হঠাৎ করেই রিফাত জ্বরে আক্রান্ত হলে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়। অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয় তাকে। প্লাটিলেট কমে যাওয়ায় রাত দেড়টার দিকে তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে ঢামেক হাসপাতালে ২২ জন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে। রিফাতের বাবার নাম খোরশেদ আলী।
তাদের গ্রামের বাড়ি জামালপুর। গতকাল সকাল ৯টার দিকে গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা যায় শিশু মেহরাজ হাসান (৮)। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে তাকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মতলব (চাঁদপুর) প্রতিনিধি জানান, মতলবের কাচিয়ারা গ্রামের মমিন সরকারের মেয়ে সায়েরা (৮) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাতে ঢাকার মগবাজার রাশমনো হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ১লা আগস্ট সায়েরা জ্বর নিয়ে প্রথমে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে মগবাজার রাশমনো হাসপাতালে আইসিওতে চিকিৎসা দেয়া হয়। ৭ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সায়েরার পিতা মমিন সরকার ঢাকার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও মা সালাম একজন গৃহিণী। তারা ধানমণ্ডির সোবহানবাগ মসজিদ কলোনি এলাকায় ভাড়া বাসায় প্রায় ১০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন। সায়েরা ধানমণ্ডি মডেল স্কুলের শিশু শ্রেণিতে পড়তো। তার ছোট বোন সাফার বয়স ২ বছর। সেও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গতকাল সকাল ৯টায় গ্রামের বাড়ি মতলব দক্ষিণ উপজেলার কাচিয়ারা জামালিয়া আলিম মাদ্রাসা মাঠে তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর