× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

দুর্নীতির বিরুদ্ধে গণমাধ্যমকর্মীর অভিনব প্রতিবাদ

অনলাইন

পলাশবাড়ী প্রতিনিধি | ১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৩:১২

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ করছেন সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম। গত ৬দিন ধরে তিনি কাফনের কাপড় পরে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন। টানা ৭১ দিন চলবে তার এ প্রতিবাদ কর্মসূচি। একই সময়ে তিনি দেশের বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান নিয়ে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলবেন। দেশবাসীকে জানাবেন তার নিজ উপজেলার ভিজিএফ, ভিজিডি, যত্ন প্রকল্প, হাট বাজার উন্নয়ন, রাজস্ব তহবিলের বরাদ্দ লুটপাটসহ বিভিন্ন অন্যায়-অনিয়ম-দুর্নীতির কথা। এই কাজে উৎসাহ দিতে সাংবাদিক আশরাফুলের মা নিজেই ছেলেকে কাফনের কাপড় পরিয়ে বাড়ি থেকে বিদায় দিয়েছেন।

আশরাফুল ইসলাম অভিযোগ করেন, পলাশবাড়ী উপজেলা প্রশাসন ভিজিএফ, ভিজিডিসহ বিভিন্ন প্রকল্পে অনিয়ম করে আসছে। এসব অনিয়ম-দুর্নীতির প্রতিবাদ জানানোর উদ্যোগ নিই। আমি যখন শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনে মাইকে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছিলাম, ঠিক সেই সময়ে অনিয়মকারী-দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের হুমকির মুখে কাফনের কাপড় পরে ৭১ দিনের এই কর্মসূচি ঘোষণা করেছি।

তিনি আরও জানান, প্রতি রোববার সকাল ১১টা থেকে ৩ ঘণ্টাব্যাপী পলাশবাড়ী উপজেলাসহ গাইবান্ধা ডিসি অফিস, বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, জাতীয় প্রেসক্লাব ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে কাফনের কাপড় পরে এই প্রতিবাদ জানাবেন।

আশরাফুল ইসলাম আরও বলেন, উপজেলা প্রশাসন অন্যায়-অনিয়ম ও দুর্নীতি করেছে কিনা তার প্রমাণ তাদের কাছে যে কাগজপত্রাদি রয়েছে ও যারা এ যাবতকালে সুবিধাগুলো পেয়েছেন তাদের কাছেই পাওয়া যাবে।

এদিকে, পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মেজবাউল হোসেন বলেন, ভিজিএফ, ভিজিডি বা অন্য কোনো প্রকল্পে কোনো ধরনের অনিয়ম করা হয়নি। স্বচ্ছতার মধ্যদিয়ে ওইসব প্রকল্পের কাজ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ১০ই আগস্ট বিকালে আশরাফুল ইসলামকে কাফনের কাপড় পরিয়ে বিদায় জানান তার মা আছমা বেগম। আশরাফুল ইসলাম পলাশবাড়ী উপজেলার উদয়সাগর গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। ২৯ বছর বয়সী এই যুবক পেশায় একজন গণমাধ্যমকর্মী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
হাবিবুর রহমান
১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৯:১৬

আমাদের কৃষক আর শ্রমিক ভাইয়েরা শুধু খেটেই মরছে , অন্য দিকে অসাধু সরকারি লোকেরা সব লুটেপুটে খাচ্ছে। সরকার নীরব! ভাই তুমি তোমার প্রতিবাদ করতে থাকো তোমার মায়ের দোয়ায়।

akm
১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৪:২৯

we have no more time for changed, so be carefuliy lead your life.

Abdul hai mazumder
১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ২:৫০

আমার তরপ থেকে তোমাকে অভিননদন। আললাহ তোমার সাথে আছে।

হাফিজ জামিল
১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৩:৪৫

বাংলাদেশ দূর্নিতির আখড়ায় পরিণত, তাই তোমার প্রতিবাদ গ্রহন করার মত লোক এদেশে নাই।

Ruhul Islam
১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ২:৩২

শুভ কামনা !

অন্যান্য খবর