× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

‘কাজের ক্ষেত্রে সংখ্যা হিসাব করি না’

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ১৭ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৭:৪১

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান খান। প্রথমে ব্ল্যাক ব্যান্ড দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেন একজন সংগীতশিল্পী হিসেবে। এরপর একক ক্যারিয়ারেও সফল তিনি। ধারাবাহিকভাবে উপহার দিযেছেন অনেক জনপ্রিয় গান। গানের পাশাপাশি মাঝেমধ্যেই অভিনয় করতেন তাহসান। তবে গত কয়েক বছর ধরে অভিনেতা হিসেবে নিজেকে অন্যভাবে মেলে ধরেছেন তিনি। এই সময়ে অভিনেতা হিসেবে দর্শকদের কাছে তার জনপ্রিয়তা ও পরিচালকদের কাছে কদর কেবল বেড়েছেই। এখন গান ও অভিনয় দুই জায়গাতেই যারপরনাই ব্যস্ত সময় পার করছেন তাহসান। ছোট পর্দার পর সিনেমার নায়ক হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেছেন তিনি। এদিকে ঈদে তাহসানের নাটক মানেই দর্শকের কাছে বিশেষ চমক। এতদিন হাতেগোনা নাটকেই ঈদে পাওয়া গেছে তাহসানকে। কিন্তু এবার ঈদে বিভিন্ন চ্যানেলের ৯টি নাটকে কাজ করেছেন তিনি। আর প্রতিটির গল্প ও তার চরিত্রেও ভিন্নতা লক্ষ্য করা গেছে। সব মিলিয়ে কেমন পার করলেন এবারের ঈদ? তাহসান উত্তরে বলেন, বেশ ভালো। আসলে ঈদ এলেতো কিছুটা হলেও অবসর সময় পাই। সে সময়টা উপভোগ করি। এবার ঈদে আপনার নয়টি নাটক প্রচার হচ্ছে। এ সম্পর্কে বলুন। তাহসান বলেন,  আমি কখনোই কোনো কাজের ক্ষেত্রে সংখ্যা হিসাব করি না। অন্য সময় হয়তো কম কাজ করি আরো। তবে এবার সব কিছু আমার মনপছন্দ হওয়ায় হয়তো নয়টা নাটক হয়ে গেছে। কিন্তু যেসব দর্শক নাটকগুলো দেখছেন তারা বলতে পারবেন প্রতিটিরই গল্প কতটা আলাদা। একই ধরনের গল্প আমাকে টানে না। আলাদা গল্প ও চরিত্র হলেই কেবল কাজ করি। এবার সেরকমটাই হয়েছে। ঈদে তাহসান অভিনীত নাটকগুলো প্রচার হয়েছে আরটিভি ও বাংলাভিশনে। এরমধ্যে আরটিভিতে প্রচার হয়েছে ‘কোন এক বিকেলের হলুদ শাড়ি’, ‘আশ্রয়’, ‘আমার মিষ্টার পরিষ্কার’ ও ফ্রাইডে লাভ’ শীর্ষক নাটক। তাহসান অভিনীত বাংলাভিশনে প্রচার হওয়া নাটকগুলো হলো- ‘মায়া সবার মতো না’, ‘ইনকমপ্লিট’, ‘লেডি কিলার টু’, ‘ডেইট’ ও ‘শেষ বিকেল’। এ নাটকগুলোতে তাহসানের বিপরীতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, মেহজাবিন, সারিকা ও তানজিন তিশা। কোন নাটকটি থেকে বেশি সাড়া পাচ্ছেন? তাহসান উত্তরে হেসে বলেন, দেখুন প্রত্যেকটি নাটকই আমার পছন্দের। লক্ষ্য করলে দেখা যাবে রোমান্টিকের পাশাপাশি অন্যরকম গল্পের নাটক রয়েছে এখানে। যেমন ‘আশ্রয়’ নাটকটিতে দেখা যায় বাবা-মাকে সন্তানেরা আশ্রমে দিয়ে আসে। আর আমি ও আমার স্ত্রী তাদের ঘরে নিয়ে আসি। আমাদের বাবা-মায়ের অভাব দূর হয়। কিন্তু পরে জটিলতা তৈরি হয়। সেই বাবা-মার চরিত্রে কাজ করেছেন মোশাররফ করিম ও মম। আর আমার স্ত্রী হিসেবে কাজ করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। সব মিলিয়ে দারুণ ফিডব্যাক পেয়েছি নাটকটি থেকে। আবার ‘আমার মিষ্টার পরিষ্কার’ নাটকে আমি খুব পরিস্কার থাকতে পছন্দ করি, এমনকি কারো সঙ্গে হ্যান্ডশেক করতে হলেও টিস্যু ব্যবহার করি। বাকি নাটকগুলোতেও এরকমই ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রেই কাজ করার চেষ্টা করেছি। এখন সব নাটক প্রচার হবার পর আসলে সত্যিকারের ফিডব্যাকটা পাবো। আরো সময় দিতে হবে। ‘যদি একদিন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। দ্বিতীয় চলচ্চিত্র কবে আসছে? তাহসান বলেন, সেটা আসলে জানি না। কারণ ‘যদি একদিন’ সবকিছু সঠিক ছিল বলে কাজ করেছি। ঠিক এমনভাবে যদি কোন প্রস্তাব সামনে আসে অবশ্যই কাজ করবো। অভিনয়ের কথা তো হলো, গানের কি অবস্থা? তাহসান বলেন, গান চলছে তার আপন গতিতে। ঈদে সিএমভির ব্যানারে একটি গান প্রকাশ হয়েছে। তাছাড়া নতুন গানের কাজ প্রতিনিয়ত চলছে আমার। স্টুডিওতে বসে আমি নিয়মিতই গানের কাজ করতে থাকি। আশা করছি সামনে কিছু ভালো গান শ্রোতাদের উপহার দিতে পারবো।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর