× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার

‘ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের প্রশ্নে সমগ্র পাকিস্তান এক স্থানে এসে দাঁড়ায়’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ৮:২৫

কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি ও দেশটির আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর আইএসপিআরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিফ গফুর একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেছেন। শনিবার এই সংবাদ সম্মেলন থেকে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে সামপ্রতিক উত্তেজনা নিয়ে পাকিস্তানের অবস্থান স্পষ্ট করেন তারা। এ খবর দিয়েছে ডন।
গণমাধ্যমকে উদ্দেশ্য করে কুরেশি বলেন, কাশ্মীর বিষয়ক বিশেষ কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের অধীনেই কাশ্মীর সেল গঠন করা হবে। একইসঙ্গে বিশ্বব্যাপী পাকিস্তানের দূতাবাসগুলোতেও কাশ্মীর ডেস্ক খোলা হবে বলে জানান তিনি। এর ফলে এই ইস্যুতে কার্যকরী যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে। কুরেশি বলেন, কাশ্মীর বিষয়ক সেলে পাকিস্তানের সব বিরোধীদলের সদস্যরা অন্তর্ভুক্ত থাকবে। এর অর্থ হচ্ছে, যখন ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের প্রশ্ন আসে তখন সমগ্র পাকিস্তান এক স্থানে এসে দাঁড়ায়।  
সংবাদ সম্মেলনে তাকে ভারতের ৩৭০ ধারা বাতিল নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। এতে কুরেশি বলেন, পাকিস্তান কখনই ভারতের ৩৭০ ধারাকে স্বীকৃতি দেয়নি। আমরা তাই এটি নিয়ে চিন্তিত নই। পাকিস্তান কাশ্মীরের জনসংখ্যাগত পরিবর্তন ও সেখানকার মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে উদ্বিগ্ন।
কুরেশির সঙ্গে সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পাকিস্তান আইএসপিআরের মহাপরিচালক জেনারেল আসিফ গফুর। তিনি ভারতকে উদ্দেশ্য করে বলেন, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী ভারতের যেকোনো ভুল পদক্ষেপের জবাব দিতে প্রস্তুত। কাশ্মীরে কী চলছে তা ভারতীয় সেনা কর্মকর্তাদের বক্তব্য থেকেই বোঝা যায়। পাকিস্তান মনে করে কাশ্মীরে ভারত যা করেছে তার প্রতিক্রিয়া খুব দ্রুতই স্পষ্ট হবে এবং আমরা সবকিছুর জন্যেই প্রস্তুত আছি।
জেনারেল গফুর আরো বলেন, পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে এমন কোনো পদক্ষেপ নেবে না যাতে আন্তর্জাতিক মহলে নিন্দার মুখে পরে ইসলামাবাদ। বর্তমান অবস্থাতে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠনগুলো কাশ্মীরে উত্তেজনা সৃষ্টি করতে পারে এমন আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে। এ প্রসঙ্গে গফুর বলেন, কাশ্মীরে এখন যে পরিমাণ ভারতীয় সেনা মোতায়েন করা আছে তাতে যদি পাকিস্তান থেকে একজন জঙ্গিও প্রবেশ করতে পারে তা হবে ভারতের জন্য বড় ব্যর্থতা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর