× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
বিলবাও ১-০ বার্সেলোনা

মেসিকে ছাড়া ‘অচল’ বার্সেলোনা!

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ৮:৪১

প্রায়ই বলা হয় আর্জেন্টিনা ‘লিওনেল মেসি নির্ভর দল’। বার্সেলোনাই কম কীসে? অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে চোটের কারণে শুক্রবার বার্সার মৌসুমের প্রথম ম্যাচ খেলতে পারেননি মেসি। আর ১-০ গোলে হেরে গেছে বার্সেলোনা। ১০ বছর পর লা লিগার প্রথম ম্যাচে হার দেখলো বার্সা।  ২০০৮’র লা লিগায় প্রথম ম্যাচে নুমানসিয়ার কাছে ১-০ গোলে হার দেখেছিল পেপ গার্দিওলার বার্সেলোনা। অবশ্য শেষ পর্যন্ত সেবার ট্রেবল জিতেছিল কাতালান দলটি। ২০১৮ সালের নভেম্বরের পর মেসিকে ছাড়া কোনো ম্যাচ জেতেনি বার্সেলোনা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে মেসিহীন বার্সা শেষ ৬ ম্যাচের ৪টিই হেরেছে আর ড্র করেছে ২টিতে।
মেসিকে ছাড়া গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গ্রুপ পর্বে ইন্টার মিলান ও লা লিগায় পুঁচকে দল হুয়েস্কার সঙ্গে ড্র করে বার্সা। আর কোপা দেল রে প্রতিযোগিতার শেষ ষোলোর প্রথম লেগে লেভান্তের কাছে হেরে যায় ২-১ গোলে। তবে দ্বিতীয় লেগে মেসি ম্যাজিকে ৩-০ গোলে জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে বার্সেলোনা। সেখানেও প্রথম লেগে মেসিহীন বার্সা সেভিয়ার কাছে ২-০ গোলে হেরে যায়। কিন্তু মেসিকে নিয়ে দ্বিতীয় লেগে সেভিয়াকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে যায় তারা। এরপর লা লিগার শেষ দিকে সেল্টা ভিগোর কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হয়েছিল বার্সেলোনা।
বিলাবাওয়ের বিপক্ষে বার্সেলোনার  একাদশে মেসি না থাকলেও তারকা খেলোয়াড়ের অভাব ছিল না। আক্রমণভাগে লুইস সুয়ারেজ আর উসমান দেম্বেলের সঙ্গে ছিলেন নতুন খেলোয়াড় আতোয়ান গ্রিজম্যান। কেউই একটা গোল এনে দিতে পারেননি। সুয়ারেজ অবশ্য একবার পোস্টে লাগিয়েছেন বল। আরেকবার রাফিনহার শট ঠেকিয়ে দিয়েছে ক্রসবার। তবে পুরো ম্যাচে বার্সার খেলোয়াড়ারা লক্ষ্যে শট নিতে পেরেছেন কেবল ২টি। যেখানে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের অন-টার্গেট শট ছিল ৫টি। মেসি থাকলে বার্সার অন টার্গেট শট নিশ্চয়ই এত কম থাকতো না! তাছাড়া গত কয়েক মৌসুম পর্যালোচনা করলে দেখা যায় গোল করার পাশাপাশি গোল করাতেও দারুণ ভূমিকা রাখেন মেসি। গত দুই মৌসুমে লা লিগায় বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে মূল অবদান তারই। ২০১৭-১৮ মৌসুমে লীগে সর্বাধিক ৩৪ গোল আর সর্বাধিক ১২ অ্যাসিস্ট করেন মেসি। গতবারও সর্বাধিক গোল আর অ্যাসিস্টের মালিক (৩৪ গোল, ১৩ অ্যাসিস্ট) ছিলেন তিনি। সাধে কী আর বার্সেলোনাকে ‘মেসির দল’ বলে লোকে!

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর