× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার

আবারো সৌদি আরবের গুরুত্বপূর্ন তেলক্ষেত্রে হুতির ড্রোন হামলা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ২:৩০

সৌদি আরবের আরো এক তেলক্ষেত্রে হামলা চালিয়েছে ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা। দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় শায়বাহ তেলক্ষেত্রে ১০টি ড্রোনের মাধ্যমে এ হামলা চালিয়েছে গোষ্ঠীটি। তবে সৌদি আরব দাবি করেছে, হামলা হলেও সেখানে তাদের তেল উৎপাদন অব্যাহত আছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

হামলার বিষয়ে হুতির মুখপাত্র জানায়, এটি এখন পর্যন্ত হুতিদের সৌদি আরবের সবথেকে ভেতরে হামলার রেকর্ড। একে তারা সৌদি আরবের প্রতি বড় আঘাত হিসেবে উল্লেখ করে। সৌদি জ্বালানী মন্ত্রী খালিদ আল-ফালিহ এই তেলক্ষেত্রকে সবথেকে গুরুত্বপূর্ন হিসেবে আখ্যায়িত করে হামলার নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন। এতে তিনি বলেন, এই হামলা শুধু সৌদি আরব নয় আন্তর্জাতিক তেল সরবরাহের ওপর হামলা। এটি বৈশ্বিক অর্থনীতির জন্য একটি বড় হুমকি। তার এ বিবৃতি প্রকাশ করেছে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় প্রেস এজেন্সি। হামলার পর সৌদি আরামকো জানায়, এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আমাদের প্রশিক্ষিত দল দ্রুতই সব আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছে।
শায়বাহ তেলক্ষেত্রটি হুতি নিয়ন্ত্রিত ইয়েমেন থেকে এক হাজার কিলোমিটারেরও বেশি দূরে অবস্থিত। এটি সংযুক্ত আরব আমিরাত সীমান্তে অবস্থিত। ইয়েমেন যুদ্ধে সৌদি আরবের সবথেকে বড় সহযোগি রাষ্ট্র হচ্ছে আরব আমিরাত। তারাও হুতির ড্রোন হামলার আতঙ্কে রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর