× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

বুড়িতিস্তা নদীর ব্রিজ হুমকির মুখে

বাংলারজমিন

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি | ১৯ আগস্ট ২০১৯, সোমবার, ৮:০৪

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বুড়িতিস্তা নদীর উপর নির্মিত শত বছরের একটি ব্রিজ হুমকির মুখে রয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে ব্রিজটি ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে পৌরসভাসহ উপজেলার ২টি ইউনিয়নের প্রায় ১৫ গ্রামের মানুষজন। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়বে এসব এলাকার স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ প্রায় অর্ধলক্ষাধিক মানুষ।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের পাতিলাপুরি গ্রামে ১৯২৫ সালের দিকে তৎকালীন সরকার মানুষের যাতায়াতের জন্য বুড়িতিস্তা নদির উপর ৩৫ ফুট দৈর্ঘ্যের ব্রিজটি নির্মাণ করেন। দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকি নিয়ে ব্রিজটির উপর দিয়ে যানচলাচল করলেও বুড়িতিস্তা নদী খনন করা হলে তা আরো ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যায়। সম্প্রতি ভয়াবহ বন্যার পানির তোড়ে ব্রিজটির নিচের মাটি সরে গিয়ে গভীর গর্তের সৃষ্টি হলে ফ্লোরের পাকা অংশ ধসে যায়। এ অবস্থায় ব্রিজটির উইং ওয়ালের ইট বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লে ব্রিজের পাটাতন পাশের মাটির উপর আটকে আছে। ফলে যেকোনো মুহূর্তে ব্রিজটি ভেঙে পড়ে প্রাণহানির আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী। ওই এলাকার আবদুর রহিম (৭৫), কেরামত আলী (৬২)সহ অনেকে বলেন, বহু বছর আগে ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়। প্রতিদিন এ ব্রিজের উপর দিয়ে স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ শত শত যানবাহন ঝুঁকি নিয়েই চলাচল করছে। ব্রিজটি ভেঙে গেলে উলিপুর পৌরসভাসহ দলদলিয়া ও থেতরাই ইউনিয়নের মিয়াপাড়া, পাতিলাপুর, ঘাটিয়াল পাড়া, টাপু, কিশোরপুর, অর্জুনসহ ১৫ গ্রামের হাজার হাজার মানুষকে দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হবে। গত শনিবার বিকালে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু, ভাইস চেয়ারম্যান ও উলিপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবু সাঈদ সরকার, সাধারণ সম্পাদক সহকারী অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম সরদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান সরদার, সহপ্রচার সম্পাদক প্রভাষক শাহীনুর আলমগীরসহ উপজেলা প্রকৌশল বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজটি পরিদর্শন করেন। উপজেলা প্রকৌশলী নুরুল ইসলাম বলেন, জনস্বার্থে দ্রুত ব্রিজটি নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর