× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

বরাবরের মতো...

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার | ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার, ৭:৫৮

বরাবরের মতো গেল ঈদেও শাহানাজ খুশী  তার অভিনয় প্রতিভার প্রমাণ দিয়েছেন অভিনীত সবকটি নাটকে। বৃন্দাবন দাসের রচনায় ‘জয়েন্ট ফ্যামিলি’, ‘হেভিওয়েট মিজান’, ‘লেকুর এভারেস্ট জয়’, ‘২৫/২ কাঠমণ্ডু ভ্যালি’ এবং সাগর জাহানের রচনায় ‘কবুল বলিল কে’ নাটকে অনবদ্য অভিনয় করে দর্শকের মধ্যে দারুণ সাড়া ফেলেছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে খুশী বলেন, সত্যি বলতে কী অভিনয় আমার নেশা, আবার অভিনয় আমার পেশাও বটে। আমি আমার পেশাদারিত্বের জায়গায় শতভাগই সৎ থেকে কাজ করার চেষ্টা করি। ঈদে আমি যেসব নাটকে অভিনয় করেছি বলা যায় প্রত্যেকটি নাটকেরই গল্পে পরিবার উঠে এসেছে। নাটকগুলোতে প্রেমকে এড়িয়ে একটু অন্যরকম গল্প উপস্থাপন করার চেষ্টা করা হয়েছে। খুব সহজে বলতে গেলে বলা যায় বৃন্দাবন দাসের নিজস্ব একটা ঘরানা আছে। সেই ঘরানারই গল্পের নাটকে আমি অভিনয় করেছি। নাটকগুলো প্রচারের পর ব্যক্তিগতভাবে আমি অনেক ফোন
পেয়েছি। ঈদ উৎসবে যখন যেখানে গিয়েছি সবার কাছ থেকে অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছি। দর্শক শুধুই প্রেম নয়, নাটকে জীবনের গল্প দেখতে চান। নাটকে নিজের পরিবারের গল্প খুঁজে পেতে চান। আমরা জানতাম নাটক হলো শ্রেণী সংগ্রামের হাতিয়ার, পরিবর্তনের হাতিয়ার। নাটক থেকেই মানুষ শিক্ষা গ্রহণ করে। আমি ঈদে যেসব নাটকে অভিনয় করেছি সে নাটকগুলোতে তা আছে। এদিকে আজ খুশী পূবাইলে সাগর জাহানের প্রচার চলতি ধারাবাহিক নাটক ‘সোনার খাঁচা’র শুটিংয়ে অংশ নেবেন। আর আজ থেকে বাংলাভিশনে প্রচার শুরু হচ্ছে তার অভিনীত নতুন ধারাবাহিক নাটক সকাল আহমেদ পরিচালিত ‘ভদ্রপাড়া’।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর