× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

স্পেনে অভিষেকেই চমক ফেলিক্সের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:৩৪

স্প্যানিশ লা লিগায় অভিষেকেই চমক দেখালেন ‘নতুন রোলালদো’ খ্যাত জোয়াও ফেলিক্স। না কোনো গোল করতে পারেননি। তবে গেটাফের বিপক্ষে পায়ের যে কারিকুরি দেখিয়েছেন ফেলিক্স, তাতে আলোড়নই সৃষ্টি করেছেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রটেছে, ‘রত্ন পেয়ে গেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।’ আলভারো মোরাতার গোলে ম্যাচটিতে ১-০ গোলে জেতে অ্যাটলেটিকো। ম্যাচে একটি পেনাল্টিও আদায় করেন ফেলিক্স। তবে পেনাল্টি মিস করেন মোরাতা। পায়ের চোটের কারণে ৬৫তম মিনিটে মাঠ ছাড়েন ফেলিক্স। অ্যাটলেটিকো জানিয়েছে, ফেলিক্সের চোট গুরুতর নয়।
গত মৌসুমে বেনফিকার হয়ে ইউরোপা লীগে ৪ গোল করে আলোচনায় আসেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড ফেলিক্স। এরপর গ্রীষ্মকালীন দলবদলে বেনফিকা থেকে ১১৪ মিলিয়ন পাউন্ডে ১৯ বছর বয়সী এই ফুটবলারকে দলে ভেড়ায় অ্যাটলেটিকো। প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলেন ফেলিক্স। সেই ধারা অব্যাহত থাকলো তার লা লিগার অভিষেকেও। ম্যাচের ৫৫তম মিনিটে যা দেখিয়েছেন, সেটি তো চোখে লেগে থাকার মতো। ১০ সেকেন্ডে প্রায় ৮০ গজ দৌড়ে প্রতিপক্ষের তিন খেলোয়াড়কে বোকা বানান ফেলিক্স। প্রথমে নিজেদের অর্ধে এক খেলোয়াড়কে নাটমেগ করে দারুণ গতিতে গোলমুখের দিকে ছুটে চলেন তিনি। পথে আরো দুজন ডিফেন্ডারকে গতিতে পরাভূত করে একেবারে পৌঁছে যান ডি বক্সে। ফেলিক্সকে থামাতে অবশেষে ফাউলের আশ্রয় নেন একজন। রেফারি সঙ্গে সঙ্গেই পেনাল্টির বাঁশি বাজান। ফেলিক্স কিক নেননি। অভিজ্ঞ আলভারো মোরাতা আসেন স্পট কিক নিতে। কিন্তু গোল করতে ব্যর্থ হন মোরাতা। কাইরন ট্রিপিয়ারের অ্যাসিস্টে ২৩তম মিনিটে এই মোরাতাই এগিয়ে গিয়েছিলেন অ্যাটলেটিকোকে। উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচটিতে প্রথমার্ধেই ১০ জনের দলে পরিণত হয় দুই দল। ৩৮তম মিনিটে লাল কার্ড দেখেন গেটাফের জর্জ ভিদাল। চার মিনিট পর দ্বিতীয় হলুদ কার্ড (লাল কার্ড) দেখে মাঠ ছাড়েন অ্যাটলেটিকোর ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার রেনান লোডি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর