× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার
বিপিএল-এর সপ্তম আসর

বিসিবি’র কাছে ঢাকা খুলনা-রাজশাহীর যে দাবি

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার, ৯:৩৬

আগের ছয় আসর শেষ হতেই বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে শেষ হয়েছে বিসিবি ও বিপিএল পরিচালনা কমিটির সঙ্গে চুক্তি। আগামী চার আসরের জন্য বিসিবি ঘোষণা করেছে বিপিএলের দ্বিতীয় মেয়াদ। যেখানে সব শুরু হবে নতুনভাবেই। তবে বিপত্তি বেঁধেছে চুক্তির আগেই ফ্র্যাঞ্চাইজিরা ক্রিকেটার দলে টানায়। বেশ কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি আসর শুরুর আগেই দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারকে দলে টেনেছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় চমক ঢাকা ডায়নামাইটস ছেড়ে সাকিব আল হাসানের রংপুর রাইডার্সে চুক্তিবদ্ধ হওয়া। এরপরই নড়েচড়ে বসে বিসিবি। জানিয়ে দেয় সপ্তম আসর থেকে শুরু হবে সব নতুন করে। তাই কোনো ক্রিকেটারকে দলে নিলে সেই দায় তারা নিবে না। কারণ নতুন করেই হবে দ্বিতীয় মেয়াদের ড্রাফট। এই ঘোষণাতে বেঁকে বসে রংপুর রাইডার্স। হুমকি দেয় বিপিএল না খেলারও। তবে সমস্যা সমাধানে নতুন নিয়ম নিয়ে আলোচনা করতে ফ্র্যাঞ্চাজিইদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। সেই আলোচনা শুরু হয়েছে গতকাল থেকে। প্রথম দিনে গভর্নিং কাউন্সিলের সঙ্গে দিনের শুরুতে আলোচনায় বসে ঢাকা ডায়নামাইটস। এরপর খুলনা টাইটান্স ও সব শেষ রাজশাহী কিংস। যদিও এদিন রংপুরের আলোচনায় বসার কথা ছিল। কিন্তু তারা একদিন সময় নিয়েছে। সেই আলোচনায় খুলনার কর্ণধার কাজী ইনাম আহমেদ দাবি জানিয়েছেন একজন দেশি ও দু’জন বিদেশি ক্রিকেটার নিয়ে নতুন মেয়াদে সপ্তম আসর শুরু করতে। এই দাবির পক্ষে নীরব ছিল ঢাকা ও রাজশাহী। তবে তিন ফ্র্যাঞ্চাইজিই রেভিনিউ শেয়ার করা নিয়ে ছিলেন প্রায় একমত। এটি হলে বিপিএল পরিচালনা কমিটিকে টিকিট ও টিভি স্বত্ত থেকে প্রাপ্ত অর্থ দলগুলোর সঙ্গে ভাগাভাগি করতে হবে।
এক দেশি- দুই বিদেশি চায় টাইটান্স
জানা গেছে এরই মধ্যে খুলনা টাইটান্স দলে টেনেছে তামিম ইকবালসহ বেশ কয়েকজন দেশি বিদেশি ক্রিকেটারকে। যেহেতু বিপিএল পরিচালনা পরিষদ নতুনভাবে শুরু করতে চায় তাহলে খুলনার অবস্থান কী হবে? এ নিয়ে কাজী ইনাম বলেন, ‘বিসিবি চায় এই বছর যেহেতু নতুনভাবে শুরু হচ্ছে, একদম সতেজভাবে শুরু করতে। সেখানে হয়তোবা একটা বা দুইটা ফরেন সাইনিং থাকতে পারে। আমরা আগেও মিডিয়ায় বলেছি দুইটা বা তিনটা ফরেন সাইনিং থাকলে একটা লোকাল প্লেয়ার আমার অবশ্যই দরকার। আমি যদি একটা প্লেয়ারকে নিয়ে খুঁটিনাটি শুরু করি, সেটা অধিনায়ক হতে পারে, মার্কি প্লেয়ার হতে পারে। এটা নিয়ে কিন্তু আমাদের খুলনা টাইটান্স অনেক কথা শুনেছে, যে আপনারা খুলনা দল, অথচ আপনাদের খুলনার কোনো ক্রিকেটার নাই। আমরা কিন্তু সেটাও কন্সিডার করতে পারি, যে আমরা খুলনা থেকেই শুরু করি। তো একটা লোকাল প্লেয়ার হলে, সেটা যেভাবেই হোক, সিস্টেমকে আরও সুন্দর করে তুলবে।’
নতুনভাবে শুরুতে আপত্তি নেই ডায়নামাইটসের
আলোচনায় ঢাকা ডায়নামাইটসের পক্ষে অংশ নিয়েছিলেন সিইও ওবায়েদ নিজাম। তিনি বলেন, ‘বড় কোনো এজেন্ডা তো ছিল না, আমাদের ইন্টারেস্ট ছিল। আপনারা জানেন যে একটা সাইকেল শেষ হয়েছে বিসিবির। তো নতুন সাইকেলের জন্য ওরা আমাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে, আমরা এসেছি। তারা জানতে চেয়েছে আমরা কি চাচ্ছি, আমরা সেটা জানিয়ে দিয়েছি, ঢাকা ডাইনামাইটসের মালিক হিসেবে। এরপরেও অনেক নিয়ম কানুনে পরিবর্তন আসবে বলে তাঁরা বলেছে, পুরোপুরি তো জানিনা, এখনও বিস্তারিত কিছু পাইনি। আইকনদের নিয়ে তো কোনো প্রশ্ন নেই, কারণ এবার থেকে সব নতুন করে শুরু হবে। আমাদের থেকে কিছু উপদেশ চেয়েছিলেন তারা, তা আমরা লিখে নিয়ে আসছিলাম। তারা শুনেছেন। সাকিবের ব্যাপারে কোনো আলোচনা হয়নি। আর আমরা ফেব্রুয়ারি থেকে দল গুছানোর জন্য প্রস্তুত ছিলাম, বাকিদের কথা জানি না। নিয়ম যেহেতু পরিবর্তন হচ্ছে, রিটেনশন রাখা হবে না, নতুন করে নতুন সাইকেল করা হবে। আশা করছি সময় যথেষ্ট আছে দল সাজানোর জন্য।’
নতুন নিয়মে বারবার পরিবর্তন চায় না কিংস
অন্যদিকে গতকাল আলোচনা শেষে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রাজশাহীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিপিএলের নতুন নিয়মে আপত্তি নেই তাদের। তবে আগামী চার আসরের জন্য যে নিয়ম হবে সেই নিয়ম যেন বহাল থাকে এবং বারবার পরিবর্তন না হয় সেটির দাবি জানিয়েছে তারা। তবে দলটি চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের নিয়ে এই আসর শুরুর বিষয়ে কোনো বক্তব্য জানায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর