× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার

সৌদি আরবে চালু তাৎক্ষণিক লেবার ভিসা সার্ভিস

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২০ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার, ১:৫৯

সৌদি আরবে চালু হয়েছে ‘ইন্সট্যান্ট’ লেবার ভিসা সার্ভিস। সোমবার সৌদি আরবের শ্রম ও সমাজ উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ ঘোষণা দিয়েছে। নিজস্ব কিওয়া (য়রধি) ইলেক্ট্রনিক পোর্টালের মাধ্যমে এই সেবা দেয়া হবে। আগে বেসরকারি সেক্টরের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে শ্রমিক নিয়োগের ক্ষেত্রে ভিসা পেতে সময় ব্যয় করতে হতো ৮ মাস। কিন্তু ডিজিটাল পদ্ধতিতে এ সেবা এখন তাৎক্ষণিকভাবে দেয়া হবে। তবে  সব কোম্পানিই এই সুবিধা পাবে না। ওইসব কোম্পানি এই সুবিধা পাবে যারা তাদের প্রতিষ্ঠানে সৌদিকরণের অংশ হিসেবে উচ্চ হারে সৌদি আরবের নাগরিকদের নিয়োগ দিয়েছে, মন্ত্রণালয়ের বিধিবিধান পুরোপুরি মেনে চলেছে। এ খবর দিয়েছে সৌদি আরব সরকারের অনলাইন সৌদি গেজেট।

‘স্থানীয়করণ বনাম তাৎক্ষণিক নিয়োগ’ ফর্মুলার মাধ্যমে সৌদিকরণ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধির লক্ষ্যে এই সার্ভিস চালু হয়েছে। যে প্রতিষ্ঠানে যত বেশি সৌদি আরবের নাগরিক নিয়োগ দেয়া হয়েছে, তারা তত বেশি শ্রমিককে তাৎক্ষণিক ভিসার জন্য যোগ্য হবে। এক্ষেত্রে বেশ কিছু শর্ত আরোপ করেছে মন্ত্রণালয়। এর অধীনে ওইসব প্রতিষ্ঠান এমন ভিসা পাবে যারা মধ্যম সবুজ ক্যাটেগরিতে আছে, উচ্চ হারে সৌদিকরণ করেছে। এ ছাড়া ওই প্রতিষ্ঠানকে টানা ১৩ সপ্তাহ মধ্যম সবুজ ক্যাটেগরিতে থাকতে হবে। অথবা গত ৫২ সপ্তাহে অন্তর্বর্তী ২৬ সপ্তাহ এই ক্যাটেগরিতে থাকবে। পাশাপাশি ওই প্রতিষ্ঠানের বৈধ ওয়ার্ক পারমিট থাকতে হবে এবং তাদেরকে ‘ওয়েজ প্রটেকশন প্রোগ্রাম’ মেনে চলতে হবে।
যদিও সরকার সম্প্রতি চালু করেছে কিওয়া প্লাটফরম তবু এর মধ্য দিয়ে শ্রম বাজারে ভাল সেবা দেয়ার চেষ্টা করছে। এ সেবাখাত থেকে উন্নতমানের সেবা দেয়ার জন্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিবন্ধিত হতে বলা হয়েছে। কিওয়া সার্ভিসের ওয়েব ঠিকানা হলো-ww w.qiwa.sa

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর