× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

পদত্যাগের ঘোষণা ইতালির প্রধানমন্ত্রীর, সালভিনিকে দোষারোপ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ৮:৪১

পদত্যাগ করবেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী গুইসেপ্পে কন্তে। তার নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের অংশীদার ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাত্তেও সালভিনির সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ার পর এমন ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সালভিনির বিরুদ্ধে দায়িত্বহীনতা এবং ব্যক্তিগত ও নিজ দলীয় স্বার্থের জন্য রাজনৈতিক সংকট তৈরি করার অভিযোগ এনেছেন তিনি। প্রসঙ্গত, কন্তের বিরুদ্ধে পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোটের প্রস্তাব দিয়েছে সালভিনি। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, কন্তে নেতৃত্বাধীন ফাইভ স্টার মুভমেন্ট ও সালভিনি নেতৃত্বাধীন জাতীয়তাবাদী লিগ পার্টির জোট সরকারে ভাঙনের সৃষ্টি হয়েছে। একে অপরের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছেন কন্তে ও সালভিনি। সরকার গঠনের মাত্র ১৪ মাসের মাথায় এমন রাজনৈতিক টানাপোড়নে পড়েছে ইতালির জোট সরকার। সালভিনি জানিয়েছেন, তার পক্ষে ফাইভ স্টার মুভমেন্টের সঙ্গে আর কাজ করা সম্ভব নয়।

এদিকে, মঙ্গলবার উচ্চকক্ষ সিনেটের উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে কন্তে বলেছেন, গত মে মাসে অনুষ্ঠিত ইউরোপীয় নির্বাচনে সাফল্য আসার পর থেকে জাতীয় নির্বাচনে ফেরার সুযোগ খুঁজে বেড়াচ্ছেন সালভিনি। প্রসঙ্গত, মে মাসের ইউরোপীয় নির্বাচনে ৩৪ শতাংশ ভোট পেয়ে ইতালির শীর্ষ দল হিসেবে চিহ্নিত হয় দ্য লিগ । অন্যদিকে, ফাইভ স্টার পায় মাত্র ১৭ শতাংশ। কন্তে বলেন, সালভিনির জন্য সরকারের কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটেছে। এই টানাপোড়ন এখানেই শেষ করা উচিৎ। তিনি আরো বলেন, আমি আজ জানাতে চাই যে, আমি প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করবো।
সিনেটে কন্তের বক্তব্য দেয়ার আগ দিয়ে ফাইভ স্টার নেতা লুইগি দি মায়ো এক ফেসবুক পোস্টে জানান, আজ লিগকে তাদের ভুলের জন্য, সবকিছুর পতন ঘটানোর জন্য, আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে সরকারি সংকট সৃষ্টির জন্য উত্তর দিতে হবে। তিনি আরো জানান, কন্তের সঙ্গে কাজ করা তার জন্য অত্যন্ত সম্মানের বিষয় ছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর