× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

হটলাইনের বাজেট ৫০ লাখ ভোক্তার পরিচালককে তলব

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ৮:৫২

হটলাইন চালু করতে ৫০ লাখ টাকা বাজেট চেয়েছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। বিষয়টি পৌঁছেছে আদালত পর্যন্ত। ৫০ লাখ টাকা বাজেট চাওয়ার কারণ ব্যাখ্যা দিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) শামীম আল মামুনকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে আগামী ২৭শে আগস্ট তাকে হাইকোর্টে স্বশরীরে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। গতকাল  বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন, ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান। অপরদিকে, নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম ও  ভোক্তা অধিকারের পক্ষে ছিলেন কামরুজ্জামান কচি। শিহাব উদ্দিন খান জানান, গত ১৬ই জুন হাইকোর্ট দুই মাসের মধ্যে একটি হটলাইন  সেবা চালু করতে  ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এ আদেশের পর গতকাল  ভোক্তা অধিকারের আইনজীবী আদালতে একটি আবেদন দিয়ে জানান, এ জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। এ কথা শুনে আদালত বলেন, হটলাইন চালু করতে ৫০ লাখ টাকা লাগবে?  এসময় আদালত এ বিষয়ে ব্যাখ্যা শুনতে ওই পরিচালককে ২৭শে আগস্ট তলব করেন ।
উল্লেখ্য, গত ১৬ই জুন খাদ্যপণ্যসহ বিভিন্ন সেবা নিয়ে ভোক্তাদের সার্বক্ষণিক (২৪ ঘণ্টা) সেবা দিতে হটলাইন চালু করার জন্য আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। আদেশ বাস্তবায়নে দুই মাস সময় দেয়া হয়। সেই আদেশ প্রতিপালনের জন্য পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) শামীম আল মামুনকে সভাপতি করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কিমিটি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) থেকে প্রাপ্ত ধারণানুযায়ী একটি হটলাইন স্থাপন করতে আনুমানিক ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ের বাজেট দিয়েছেন বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর