× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

ডেঙ্গুর সমাধান খুঁজতে ৩ সংস্থার প্রতিনিধি ঢাকায়

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ৯:১২

এডিস মশা থেকে সৃষ্ট ডেঙ্গু রোগ-এর স্থায়ী সমাধান খুঁজতে আজ থেকে ঢাকা সফর করছেন তিন আন্তর্জাতিক সংস্থার বিশেষজ্ঞ দল। আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ), খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) একটি যৌথ বিশেষজ্ঞ দল আজ থেকে ২৩শে আগস্ট পর্যন্ত ডেঙ্গু পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বহিঃপ্রচার অনুবিভাগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশেষজ্ঞ দলটির প্রধান লক্ষ্য থাকবে বাংলাদেশে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে স্টেরাইল ইনসেক্ট টেকনিক (এসআইটি) বা পোকা বন্ধ্যা করার পদ্ধতির কার্যকারিতা মূল্যায়ন করা। এসআইটি পোকার প্রজনন নিয়ন্ত্রণের একটি পরিবেশ-বান্ধব পদ্ধতি। এই পদ্ধতির আওতায় একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলজুড়ে প্রজননে অক্ষম পুরুষ পোকা ছেড়ে দেয়া হয়। ওই পোকাগুলো স্থানীয় স্ত্রী পোকাদের সঙ্গে মিলনের ফলে নতুন কোনো পোকার জন্ম হয় না। এই পদ্ধতিতে এডিশ মশা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে কিনা তা নির্ধারণ করতেই আসছে ওই বিশেষজ্ঞ দল। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সমর্থনে ভিয়েনার বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রচেষ্টায় নেয়া উদ্যোগটির অনুমোদন দিয়েছে আইএইএ।

এই বিশেষজ্ঞ দলে থাকবেন এফএও/আইএইএ’র পারমাণবিক প্রযুক্তি বিভাগের খাদ্য ও কৃষি বিষয়ক টেকনিক্যাল অফিসার রাফায়েল আর্জিল হেরেরো ও দানিলো ডি অলিভেইরা কার্ভালো এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিজ্ঞানী রাজপাল যাদব। আশা করা হচ্ছে, বিশেষজ্ঞ দলটি এডিস মশা সৃষ্ট রোগ সফলভাবে মোকাবিলায় বাংলাদেশকে সহযোগিতা করবে। এ বিষয়ে ভিয়েনায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম আবু জাফর বলেন, আমরা এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে সবচেয়ে ভালো বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি সমপর্কে জানার চেষ্টা করছি। প্রয়োজনের সময়ে বাংলাদেশকে সহায়তা করার জন্য আমরা আইএইএকে ধন্যবাদ জানাই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর