× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার

যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির রামেক হাসপাতালে মৃত্যু

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে | ২৩ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৮:২৫

ঈশ্বরদীতে ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আব্দুল হাকিম (৬০) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। গতকাল দুপুর ১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গত ১০ই আগস্ট হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রামেক হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। মৃত কয়েদি হাকিম পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার বাবুপাড়া গ্রামের মৃত মহসিন আলী সরদারের ছেলে। রামেক হাসপাতালের প্রিজন সেলের ইনচার্জ এসব তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলার ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আব্দুল হাকিম মারা গেছেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি পাবনা থেকে রাজশাহীতে এসেছিলেন। কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

রামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এএসআই রফিকুল ইসলামও তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।
প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ৩রা জুলাই স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৩ ভারপ্রাপ্ত বিচারক এবং অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. রুস্তম আলী ৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ২৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড রায় দেন। এ ছাড়াও এই মামলায় ১৩ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর