× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ১৫৯৭ জন হাসপাতালে ভর্তি

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৩ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ৯:০৯

ডেঙ্গু আক্রান্তের সঙ্গে প্রতিদিনই মৃত্যু বাড়ছে। গতকালও ঢাকায় দুইজন ও বরিশালে একজন মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সরকারি তথ্য অনুসারে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৪৭ বলা হলেও বেসরকারি  হিসাবে এ সংখ্যা দেড়শ’র কাছাকাছি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভাষ্য মতে, সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গুতে ৮০ জনের সম্ভাব্য মৃত্যুর তথ্য এসেছে। তবে তারা বলেছেন, পর্যালোচনা করে এ পর্যন্ত ৪৭ জন ডেঙ্গুতে মারা গেছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এখনও  পর্যালোচনা চলমান রয়েছে। সব পর্যালোচনার পর দেশে ডেঙ্গুতে এবছর কত লোক মারা গেছে তার সঠিক পরিসংখ্যান জানা যাবে।
এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এক হাজার ৫৯৭ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল এক হাজার ৬২৬ জন। একদিনে ঢাকা মহানগরীতে ৭৬১ জন এবং ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ৮৩৬জন ভর্তি হয়েছেন। আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা ৬০ হাজার ছুঁই ছুঁই। এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ চিকিৎসকসহ ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী । স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সী অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম সূত্র এই তথ্য জানিয়েছে। বর্তমানে রাজধানীসহ সারা দেশে হাসপাতালে মোট ৬ হাজার ১৪৭ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে রাজধানীতে তিন হাজার ৩৩১ জন ও ঢাকার বাইরের দুই হাজার ৮১৫ রোগী ভর্তি রয়েছেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৩ হাজার ৩৯৮ জন। এর মধ্যে রাজধানীতে ৩২ হাজার ৩৬৮ জন এবং ঢাকার বাইরে ২১ হাজার ২৯ জন। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ২২শে আগস্ট পর্যন্ত রাজধানীসহ সারা দেশে সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৯ হাজার ৫৯২ জন। এর মধ্যে চলতি আগস্ট মাসের ২২ দিনেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪১ হাজার ১৩১ জন। গত জুলাই মাসে ১৬ হাজার ২৫৩ জন। তবে বেসরকারি হিসাবে আক্রান্তের সংখ্যা কয়েকগুণ বেশি হবে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।

এদিকে গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গিয়াসউদ্দিন (৪০) নামে আরও এক ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে তিনি মারা যান। রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজে এক নারী মারা যান। অন্যদিকে  বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মনির হোসেন (৪০)  নামে আরেকজন মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

৯৪ চিকিৎসকসহ ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী ডেঙ্গু আক্রান্ত:  রোগীদের সেবায় নিয়োজিত ৯৪ চিকিৎসকসহ ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। অধিদপ্তরের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সরা। একক হিসাবে সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু রোগী সামলানো এই সরকারি হাসপাতালের ২৫ জন ডাক্তার, ২২জন নার্স এবং ১৫ জন স্টাফসহ ৬২ জন কর্মী এ বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। বর্তমানে ডেঙ্গু আক্রান্ত ২ জন ডাক্তার এবং ১২ জন নার্স রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গত ১ জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত ৯৪ জন চিকিৎসক, ১৩০ জন নার্স এবং ৭৭ জন হাসপাতালকর্মী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। গত জুনে ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ার পর ক্রমশ তা বেড়েছে। চিকিৎসকদের সংগঠন বিএমএ জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ৯জন চিকিৎসক ডেঙ্গুতে মারা গেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর