× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

ডেঙ্গু নিয়ে এপর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি ৬১,০০০

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার, ৮:৪৩

সরকারি হিসাবে এপর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ৬১ হাজার ছাড়িয়েছে। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর যে হিসাব দিচ্ছে, বেসরকারি হিসাবে এই সংখ্যা কয়েকগুণ বেশি হবে। চলতি আগস্ট মাসের ২৩ দিনেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪২ হাজার  ৫৭৭ জনে দাঁড়িেেয়ছে। গত কয়েক দিন হাসপাতালে ভর্তি কিছুটা কমেছে। কিন্তু মৃত্যু থামছে না। মৃতের মিছিল লম্বাই হচ্ছে। গতকালও ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে তিনজন মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সরকারি তথ্য অনুসারে, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৪৭ বলা হলেও বেসরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা দেড়শ’র কাছাকাছি। রাজধানীর প্রায় ঘরে ঘরে ডেঙ্গু জ্বরে কাঁপছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এক হাজার ৪৪৬ জন ভর্তি হয়েছেন। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল এক হাজার ৫৯৭ জন। ২১শে আগস্ট ছিল এক হাজার ৬২৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা মহানগরীতে ৬৮৯ জন এবং ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ৭৫৭ জন ভর্তি হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সী অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম সূত্র এই তথ্য জানিয়েছে। বর্তমানে রাজধানীসহ সারা দেশে হাসপাতালে মোট ৬ হাজার ৩৫ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের মধ্যে রাজধানীতে তিন হাজার ৪১১ জন এবং ঢাকার বাইরের দুই হাজার ৬২৪ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৪ হাজার ৯৫৬ জন। এর মধ্যে রাজধানীতে ৩২ হাজার ৯৭৯ জন এবং ঢাকার বাইরে ২১ হাজার ৯৭৭ জন। সরকারি তথ্য অনুসারে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৪৭ বলা হলেও বেসরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা দেড়শ’র কাছাকাছি। প্রতিদিনই মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। এদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভাষ্য মতে, সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) ডেঙ্গুতে ৮০ জনের সম্ভাব্য মৃত্যুর তথ্য এসেছে। তবে তারা বলেছেন, পর্যালোচনা করে এ পর্যন্ত ৪৭ জন ডেঙ্গুতে মৃত্যু নিশ্চিত হয়েছে। এখনও পর্যালোচনা চলমান রয়েছে। সব পর্যালোচনার পর দেশে ডেঙ্গুতে এবছর কত লোক মারা গেছে তার সঠিক পরিসংখ্যান জানা যাবে।

এদিকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে আরো তিন জন। তাদের একজন গৃহবধূ জাহানারা বেগম (৩৫) ও অপর দু’জন তরুণ ফিজিওথেরাপিস্ট লিটন মালো (২৫) এবং মাদ্রাসা ছাত্র আলমগীর গাজী (১৪)। বৃহস্পতিবার রাতে তাদের মৃত্যু হয়। সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডা. আবু শাহীন সাংবাদিকদের জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত ১৮ই আগস্ট সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন জাহানারা বেগম। এর আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মারা গেছেন সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার শ্রীকলা গ্রামের সিরাজুল গাজীর ছেলে আলমগীর গাজী (১৪)। মাদ্রাসা ছাত্র আলমগীর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল। এদিকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে লিটন মালো (২৫) নামে এক তরুণ ফিজিওথেরাপিস্টের মৃত্যু হয়েছে। সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর