× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

হাতিবান্ধায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার অনশন

বাংলারজমিন

লালমনিরহাট প্রতিনিধি | ২৫ আগস্ট ২০১৯, রবিবার, ৮:৫৮

যৌতুকের টাকা আগাম  পরিশোধ। বিবাহ করবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিয়েও ভেঙে দিলো প্রেমিক। এখন বিয়ে না টালবাহানা প্রেমিকের। এবার বিয়ের দাবিতে ৬ দিনের জন্য প্রেমিকের বাড়িতে অনশনে প্রেমিকার। ঘটনাটি লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার হাতিবান্ধায় সানিয়াজান ইউনিয়নের নিজ শেখ সুন্দর মাস্টারপাড়া এলাকায়। এ ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় চলছে তোলপাড়।  
স্থানীয়রা জানান, ওই এলাকার বদিউজ্জামানের পুত্র সাখাওয়াত হোসেন পার্শ্ববর্তী এক স্কুলছাত্রীর সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। বিষয়টি মেয়ের পরিবার বুঝতে পেরে মেয়েটিকে অন্যত্র বিয়ে ঠিক করে। মেয়ের বাবা যৌতুকের কিছু টাকা বর পক্ষকে দিয়েও দেয়। কিন্তু সাখওায়াত বিষয়টি জানতে পেরে ওই বিয়ে ভেঙে দেয়। সাখাওয়াত তার প্রেমিকা ওই স্কুলছাত্রীকে তার বাড়িতে আসতে বলে। প্রেমিক সাখাওয়াতের কথা মতো প্রেমিকা গত ১৯শে আগস্ট সাখাওয়াতের বাড়িতে আসে। এ সময় সাখাওয়াত বিয়ে না করেই ধর্ষণের চেষ্টা করেন তার প্রেমিকাকে। ওই সময় স্কুলছাত্রী চিৎকার করলে সাখাওয়াত পালিয়ে যায়। সেই দিন থেকে বিয়ের দাবিতে ওই প্রেমিকা স্কুলছাত্রী অনশন শুরু করে সাখাওয়াতের বাড়িতে। ওই দিন রাতে স্থানীয়রা এ ঘটনাটি মীমাংসা করতে গ্রাম্য সালিশে বসে। ওই সালিশে দেড় লাখ টাকা যৌতুক ঠিক করে সাখাওয়াত তার প্রেমিকাকে বিয়ে করতে রাজি হয়। মেয়ের বাবা যৌতুকের ৫ হাজার টাকা সালিশ বৈঠকের মাধ্যমেই ছেলে পক্ষকে দেয়। কিন্তু ঘটনার ৬ দিন অতিবাহিত হলেও আজো মেয়েটিকে বিয়ে করে নাই প্রেমিক সাখাওয়াত। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বাদী হয়ে হাতীবান্ধা থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর