× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

তবুও হাল ছাড়েনি মাসাকাদজারা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৪১

একটা সময় জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট  যেকোনো বড় দলের জন্য ছিল আতঙ্কের নাম। কিন্তু তাদের ক্রিকেটের সেই  জৌলুস আর নেই। দুর্নীতি, আর রাজনীতির কালো থাবায় প্রায় বন্ধ হতে বসেছে দেশটির ক্রিকেট। সম্প্রতি জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড ভেঙে দিয়েছে দেশটির সরকার। আইসিসিও তাদের নিষিদ্ধ করেছে সব টুর্নামেন্ট থেকে। তবে খেলতে পারবে দ্বি-পক্ষীয় সিরিজ। এটিই তাদের একমাত্র ভরসা।  দেশের ক্রিকেটের এমন বেহাল অবস্থাতে বাংলাদেশে এসেছে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে। এখন মাঠের এই লড়াই তাদের সামনে ক্রিকেটকে বাঁচিয়ে রাখার পথ। তাই হাল ছাড়ননি জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের বিজ্ঞাপন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। সেই ২০০১-এ তার অভিষেক দেশের ক্রিকেটের সব ফরমেটে। এখন পর্যন্ত দলের জন্য নানা চড়াই উৎড়াই পেরিয়ে লড়াই করে যাচ্ছেন দলের জন্য। এই সিরিজ শেষ হলেই বিদায় জানাবেন ক্রিকেটকে। তার আগে দেশের ক্রিকেটকে বাঁচানোর লড়াইয়ে নামবেন তিনি। মাঠে ও মাঠের বাইরের এই লড়াই নিয়ে মাসাকাদজা বলেন, ‘হ্যাঁ, বোর্ডে অনেক ঘটনা ঘটে গেছে। কিন্তু এগুলো সবই পর্দার আড়ালের ঘটনা। দেখুন ক্রিকেটটাই আমাদের পেশা। মাঠে সেরা খেলাটিই আমাদের কাজ। আমার জেনে দরকার নেই ওখানে কি হয়েছে। আমাদের প্রধান কাজ ক্রিকেট খেলা এবং সেটা ভেবেই আগামীকাল থেকে দেশের জন্য আমাদের কাজটি শুরু করতে চাইছি।’
ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে আজ বাংলাদেশের মুখোমুখি হচ্ছে জিম্বাবুয়ে। এই সিরিজে নিজেদের খুব একটা পিছিয়ে রাখছেন না জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত ৬৬টি ম্যাচ খেলেছে তারা। এই অভিজ্ঞতাকে পুঁজি করে সিরিজের প্রথম ম্যাচে সাফল্য বয়ে আনতে চান তিনি। একই সঙ্গে বাংলাদেশের পরিচিত কন্ডিশনও স্বাচ্ছন্দ্যের হতে পারে বলে মনে করেন তিনি। হ্যামিল্টন মাসাকাদজা বলেন, ‘অবশ্যই আমরা খুব বেশি পিছিয়ে নেই। আমরা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ভালো খেলেছি এবং এই কন্ডিশনের সঙ্গে যথেষ্ট পরিচিত। আমরা বাংলাদেশে অনেক ভালো খেলেছি এই ফরমেটে। তাই আমরাও খুব বেশি পিছিয়ে নেই।’ অন্যদিকে এ সিরিজে তাদের আরেক প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। যারা টি-টোয়েন্টিতে এগিয়ে আছে বাংলাদেশের চেয়ে ৩ ধাপ। আর মাসাকাদজা বলেন, ‘আমি জানি যে উভয় দলই অনেক বেশি শক্তিশালী। আফগানিস্তান অনেক ভালো টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলে। বাংলাদেশ তাদের নিজেদের কন্ডিশনে দুর্দান্ত।’
এ সিরিজ শেষ হলেই মাসাকাদজা বিদায় জানাবেন ক্রিকেটকে। তার ১৯ বছরের ক্রিকেট জীবন নিয়ে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ সত্যি আমার দারুণ সফল ক্রিকেট ক্যারিয়ার কেটেছে। অবশ্য আপস এন্ড ডাউন ছিল, তবে আমি সব উপভোগ করেছি। আমি সত্যি উজ্জীবিত। আশা করি তরুণরাও দেশের জন্য কাজ করে যাবে।’   

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর