× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার
ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার

যে কারণে দুই সপ্তাহের ছুটিতে জামালরা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৪১

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ আগামী ১০ই অক্টোবর। ঢাকার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে কাতারের সঙ্গে হোম ম্যাচটি খেলবে জামাল ভুঁইয়ারা। এর পাঁচদিন পর ভারতের সঙ্গে অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ দুটির আগে অযৌক্তিক কারণ দেখিয়ে ফুটবলারদের দুই সপ্তাহের ছুটি দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।
আফগানিস্তানের কাছে হারের পর দু’দিন আগে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল। দেশে ফিরেই ছুটিতে চলে গেছেন ফুটবলাররা। গতকাল ছুটিতে গেছেন জেমি ডে। অন্যান্য কোচিং স্টাফরাও ছুটিতে যাচ্ছেন। দুই সপ্তাহের ছুটি শেষে আগামী ২৫শে অক্টোবর শুরু হবে এই ক্যাম্প। এর আগেই কোচদের ঢাকায় ফেরার কথা। গতকাল সভা শেষে এই সিদ্ধান্তের কথা জানান ন্যাশনাল টিমস কমিটির কো- চেয়ারম্যান তাবিথ আউওয়াল। ফুটবলারররা টানা অনুশীলনে থাকলে ক্লান্তি পেয়ে যেতে পারে বলেই এই বিরতি দেয়া হয়েছে বলে জানান জাতীয় দলের হেড কোচ জেমি ডে। তবে সূত্র জানিয়েছে আর্থিক কারণেই বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের মতো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টের আগে ক্যাম্প বন্ধ করে দিয়েছে বাফুফে। জানাগেছে ফারস হোটেলে ফুটবলারদের আবাসিক ক্যাম্প বাবদ বাফুফেকে প্রতিদিন গুনতে হচ্ছে আড়াই লাখ টাকা। এর বাইরে গাড়ি ভাড়া ছাড়াও আনুসাঙ্গিক অন্যান্য খরচতো রয়েছেই। এই টাকা বাঁচাতেই দুই সপ্তাহের বিরতি দিয়েছে বাফুফে! যদিও বাফুফের সহ-সভাপতি ও ন্যাশনাল টিমস কমিটির কো-চেয়ারম্যান তাবিথ আউয়াল জানান, কোচের পরামর্শে দুই সপ্তাহের বিরতি দিয়েছেন তারা। বাফুফে কর্মকর্তাদের সঙ্গে সূর মিলিয়ে জাতীয় দলের হেড কোচ জেমি ডে বলেন, আফগানিস্তান ম্যাচ দেখে আমার মনে হয়েছে খেলোয়াড়রা যথেষ্ট ফিট আছে। তারা ম্যাচটি হারলেও পুরো ৯০ মিনিট লড়াই করেছে। এ কারণে আমার মনে হচ্ছে দীর্ঘদিন ক্যাম্পের দরকার নেই। তাছাড়া দীর্ঘদিন ক্যাম্প করলে ছেলেদের মধ্যে অবসাদ চলে আসতে পারে। এমনিতে ওরা লম্বা লীগ খেলেছে। আমার মনে হয় দুই সপ্তাহের প্রস্তুতিই কাতার ম্যাচের জন্য যথেষ্ট। আফগানিস্তানের সঙ্গে ম্যাচ নিয়ে জেমি ডে বলেন, আমাদের ডিফেন্স ভালো হয়েছে। তবে আট্যাকিং সেভাবে উন্নতি না হওয়ায় রেজাল্ট আসেনি। তবে পয়েন্ট না আসলেও আফগান ম্যাচের প্রস্তুতিতে আমি খুশি’। কাতার ও ভারত ম্যাচের আগে ঢাকায় দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তবে ম্যাচ দুটি প্রতিপক্ষ কারা তা চূড়ান্ত হয়নি জানিয়ে তাবিথ আউয়াল বলেন, এই মুহূর্তে সব দেশই ব্যস্ত আছে। আমরা চেষ্টা করছি ভালো দুটি দল এনে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচের ব্যবস্থা করা। সেক্ষেত্রে গুয়াম, ম্যাকাও ও নেপালকে আনার চেষ্টা করবো। এর বাইরে প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংসের সঙ্গেও খেলতে পারি। আমরা আফগানিস্তানের ম্যাচে সন্তুষ্ট। আফগানিস্তানের সঙ্গে ১-০ গোলে হারের পর গতকাল প্রথম সভায় বসেছিল ন্যাশনাল টিমস কমিটি সভা শেষে বাফুফের এই কর্মকর্তা জানান, আমরা কিছুটা হতাশ জয় না পাওয়ায়। তবে ছেলেদের পারফরমেন্সে খুশি। কোচ আমাদের সঙ্গে ম্যাচের বিষয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়েছে। তাই দলের ক্যাম্পের বিষয়টি তার উপর ছেড়ে দিয়েছে। সে যেভাবে চেয়েছে ওই ভাবেই কাতার ম্যাচের প্রস্তুতি শুরু হবে। আফগানিস্তান ম্যাচের আগেও মাত্র ১৬ দিনের প্রস্তুতি নিয়েছিল বাংলাদেশ। ঢাকায় সাত দিনের প্রস্তুতি শেষে তাজিকিস্তান চলে যায় দল।
উল্লেখ্য বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ‘ই’ গ্রুপে পরেছে বাংলাদেশ। গ্রুপে আফগানিস্তান, কাতার, ভারত ছাড়া অপর দলটি ওমান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর