× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

থাইল্যান্ডে কিশোরীদের বিশ্বকাপ বাছাই মিশন শুরু আজ

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৮:৩০

থাইল্যান্ডের চনবুরিতে শুরু হচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্ব। ৮ জাতির এ টুর্নামেন্ট ২০২০ সালে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য নারী অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাই পর্বও। এই টুর্নামেন্টের দুই ফাইনালিস্ট সুযোগ পাবে ভারতের অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপে। জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে এই টুর্নামেন্ট। উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে স্বাগতিক থাইল্যান্ডের বিরুদ্ধে। সন্ধ্যা ছয়টায় শুরু হবে এই ম্যাচ। বাংলাদেশের দ্বিতীয় ম্যাচ ১৮ই সেপ্টেম্বর জাপানের বিরুদ্ধে এবং গ্রুপের শেষ ম্যাচ ২১শে সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে।
২০১৭ সালে প্রথমবারের মতো এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশের কিশোরী ফুটবলাররা।
অনভিজ্ঞ মেয়েরা কোনো ম্যাচ জিততে না পারলেও দারুন খেলেছিল জাপান ও অস্টেলিয়ার মতো শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে। এবার আরেকটু পরিপক্ক হয়েই খেলতে গেছেন মারিয়া-আঁখিরা। তাইতো দুই বছর আগের মতো এবার আর শূন্য হাতে ফিরতে চান না মেয়েরা। যে কোনো দলের কাছ থেকে পয়েন্ট পেলেই সেটা হবে বড় অর্জন। এই পর্যায়ের মেয়েদের ফুটবল থেকে এর বেশি প্রত্যাশা অবশ্য করছেন না কেউ। এর চেয়ে ভালো কিছু হলে সেটা হবে বাড়তি পাওয়া।
দুই বছর আগে থাইল্যান্ডের এই চনবুরিতেই হয়েছিল টুর্নামেন্ট। সেবার বাংলাদেশ ছিল ‘বি’ গ্রুপে উত্তর কোরিয়া, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে। প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের মেয়েরা ৯-০ গোলে হেরেছিল উত্তর কোরিয়ার কাছে। যে দেশটি হয়েছিল ওই আসরের চ্যাম্পিয়ন। বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচে ৩-০ গোলে হারে জাপানের কাছে। তবে পয়েন্ট পাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করেও শেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে যায় ৩-২ গোলে। ওই ম্যাচে বাংলাদেশ ৭৭ মিনিট পর্যন্ত ২-১ গোলে এগিয়েছিল। ৭৮ ও ৮৩ মিনিটে দুটি গোল খেয়ে স্বপ্ন ভঙ্গ হয়েছিল কৃষ্ণা-মারিয়াদের। ওই ম্যাচের ৩৩ মিনিটে অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী সরকার লাল কার্ড পেয়ে মাঠের বাইরে চলে যাওয়ার পর ১০ জনের বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়িয়ে শেষ রক্ষা করতে পারেনি। তবে এবার তেমনটা হবে না বলেই বিশ্বাস করেন দলের হেড কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। শিষ্যদের প্রস্তুতি ভালো হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা এখানে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে টুর্নামেন্টের জন্য তৈরী হয়েছে। যদিও আমাদের প্রথম ম্যাচ থাইল্যান্ডের বিপক্ষে। তারা হোস্ট টিম হিসেবে বাড়তি কিছু সুবিধা পাবে। তবুও আমার বিশ্বাস মেয়েরা ভালো খেলেই তাদের কাছ থেকে পয়েন্ট ছিনিয়ে আনবে। গত টুর্নামেন্টের উদাহরন টেনে ছোটন বলেন, গত আসরের আগে আমরা কখনও উত্তর কোরিয়া, জাপানের মতো শক্তিশালী দলের বিপক্ষে খেলেছি। কিন্তু গত দুই বছরে মেয়েরা অনেক শকিশালী দলের বিপক্ষে খেলেছে। তাছাড়া দুটি ধাপ পেরিয়ে আমরা এখানে খেলার সুযোগ পেয়েছি। তাই আমার বিশ্বাস এবার ভালো কিছুই হবে। অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা কাদের সঙ্গে খেরা এসব না ভেবে টুর্নামেন্টে শুধু নিজেদের খেলার দিকেই মনোযোগ দিতে চান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর