× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার

কিশোর ফুটবলারদের লক্ষ্য দ্বিতীয় রাউন্ড

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৮:৩৬

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে বাছাইপর্বের গত আসরে গ্রুপ পর্বে শক্তিশালী কাতারকে হারিয়েও চূড়ান্ত পর্বে খেলা হয়নি বাংলাদেশের। গ্রুপে ইয়েমেন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে হেরেই স্বপ্নভঙ্গ হয় কিশোর ফুটবলারদের। তবে এবার বাংলাদেশের লক্ষ্য দ্বিতীয় পর্ব। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন অথবা বেস্ট রানার্সআপ হয়ে চূড়ান্ত পর্বে খেলতে চায় বাংলাদেশ। সে লক্ষ্য নিয়েই আজ কাতারে যাচ্ছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবল দল।
গতমাসে কলকাতার কল্যানীতে বসেছিল সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের পঞ্চম আসর। ওই আসরে গ্রুপ পর্বে নেপালের কাছে ৪-১ গোলে হেরে তৃতীয় হয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ওই দলের বেশির ভাগ ফুটবলারই থাকার কথা এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে।
তেমনটা কিন্তু হয়নি। সপ্তাহ তিনেক আগে যারা খেলে এসেছেন অনূর্ধ্ব-১৫ বয়সীদের টুর্নামেন্টে, বয়সের কারণে তাদের বেশির ভাগ খেলতে পারছেন না এই টুর্নামেন্টে! বয়স নির্ধারণ পরীক্ষায় (এমআরআই) ধরা পড়েছে তাদের বয়স ১৬ বছর পেরিয়ে গেছে। অর্থাৎ ১৬ বছরেরও বেশি বয়সের ১১ খেলোয়াড় নিয়ে অনূর্ধ্ব-১৫ সাফে খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। তড়িঘড়ি করে পুরোনো ১২জনের সঙ্গে নতুন ১১জন নিয়ে এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য দল গড়েছেন প্রধান কোচ রবার্ট মার্টিন রাইলস। পর্যাপ্ত প্রস্তুতি ছাড়াও এই দল নিয়ে আশাবাদী দলের বৃটিশ কোচ। গতকাল বাফুফে ভবনে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘এবারের টুর্নামেন্টকে আমরা দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার একটি চ্যালেঞ্জ হিসেবেই দেখছি। সব কিছুই সম্ভব।’ তিনি যোগ করেন, ‘দেশের একাডেমির ফুটবলাররা ধীরে ধীরে উন্নতি করছে। ভবিষ্যতে ভালো মানের ফুটবলার বেরিয়ে আসবে একাডেমি থেকে।’ দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলার প্রতিশ্রুতি দিলো ফুটবলার জিন সিকদারও। তিন সপ্তাহের প্রস্তুতির সঙ্গে সাইফ স্পোর্টিং ও মোহামেডান যুব দলের সঙ্গে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে যুব দল। তিনটি ম্যাচেই হেরেছে তারা। সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টে গেল আসরের চ্যাম্পিয়ন হলেও এবার তৃতীয় হয়েই ফিরতে হয়েছে লাল সবুজের কিশোরদের। গোলকিপার মেহেদী হাসানের ভুলে আট গোল হজম করে বাংলাদেশ। তবুও কাতারগামী দলে আছেন মেহেদী। সঙ্গে ওই দলের রবিউল আলম ও মইনুল ইসলাম মইনকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। এর ব্যাখ্যায় রাইলস বলেন, এমনিতে আমরা কিছু ফুটবলারকে নিতে পারছি না। তাছাড়া গোলরক্ষক ভুল করতে পারে। ওর ভুল ত্রুটি নিয়ে যথেষ্ট কাজ হয়েছে। আশা করছি কাতারে ও ভালো করবে। দল নিয়ে আশাবাদী ম্যানেজার মো. মহসিন। জাতীয় দলের সাবেক গোলরক্ষক মহসিন বলেন, ‘অসাধারণ গতি সম্পন্ন আমাদের অনূর্ধ্ব-১৬ দল। এই স্কিল যদি ধরে রাখতে পারে কাতারে, তাহলে দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলতে পারবো আমরা।’ টুর্নামেন্টে ১৮ সেপ্টেম্বর স্বাগতিক কাতার, ২০শে সেপ্টেম্বর ভুটান ও ২২শে সেপ্টেম্বর ইয়েমেনের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর