× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

বৃষ্টি হলেই ডুবে যায় সড়ক অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থায় দুর্ভোগ

বাংলারজমিন

চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি | ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:০১

সড়ক নিচু ড্রেন উঁচু বৃষ্টি হলেই ডুবছে যোগাযোগ ব্যবস্থা বাড়ছে দুর্ভোগ। কুড়িগ্রামের চিলমারীতে কাজে আসছে না অর্ধকোটি টাকার ড্রেন। সামান্য বৃষ্টিতেই উপজেলা সদর থানাহাট বাজারসহ আশেপাশের সকল সড়কসহ বিভিন্ন স্থানের সড়ক পানিতে ডুবে যায়। এতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বাজারগামী ক্রেতা, বিক্রেতা, স্কুল কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসীকে। গত বর্ষায় পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করলে জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে ড্রেন নির্মাণ করা হয়। এরপরও চলতি বছর বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ার পর থেকে শহরের বাজারের চিহ্নিত সড়ক এলাকাগুলোতে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা। এতে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে জনসাধারনের। সামান্য বৃষ্টিতে বাজার ও আশেপাশের প্রধান সড়কে পানি জমে যায়।
বিশেষ করে বৃষ্টি হলেই নবনির্মিত ড্রেনের পাশের সড়ক, কাঁচাবাজার, মাছ ও মাংস বাজারের দেখা দেয় থই থই পানি। স্থানীয়রা বলছেন, অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণ এবং রাস্তার চেয়ে ড্রেন উঁচু হওয়ার কারণে বৃষ্টির পানি ড্রেনে নামতে পারছে না। আগেও একাধিকবার ড্রেনগুলো পরিষ্কারের জন্য অর্থ ব্যয় করা হয়েছে কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। তারা আরো জানান নতুনভাবে তৈরি ড্রেন একে তো অপরিকল্পিত এছাড়াও আগের ড্রেনের চেয়ে অনেক ছোট হওয়ায় দুর্ভোগ আরো বেড়েছে। ব্যবসায়ীরা জানান, নতুন করে অর্থ খরচ করা হলেও পরিকল্পনা আর সিদ্ধান্তে ত্রুটি থাকায় জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না এছাড়াও পানি বেড় হওয়াও নেই কোনো ব্যবস্থা। থানাহাট বাজারের ব্যবসায়ী জানান, সামান্য বৃষ্টিতেই দোকান পানি ঢুকে পড়ে। সড়কের মধ্যে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ড্রেন নির্মাণ করার পরও আগের অবস্থার চেয়েও দুর্ভোগ বেড়েছে। এলাকার মমিনুল, ছক্কু, নুর আমিনসহ অনেকে জানান সামান্য বৃষ্টিতেই সড়কে জমে যাওয়া নোংরা পানিতে প্রায় সময় পোশাক নষ্ট হওয়া ছাড়াও দুর্ঘটনা ঘটছে। উপজেলা প্রকৌশলী আজিজার রহমান বলেন ড্রেন নির্মাণের সময় খোঁড়াখুঁড়ির কারণে কিছু স্থানে গর্ত হয়েছে সত্য তবে দ্রুত তা সমাধানকরাসহ রাস্তা উঁচু করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর