× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

নাটোরে চাঁদা না দেয়ায় শ্রমিককে মারধর করলো যুবলীগ নেতা

বাংলারজমিন

নাটোর প্রতিনিধি | ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:২২

নাটোরে চাঁদা না দেয়ায় এক পরিবহন শ্রমিককে পিটিয়ে আহত করেছে যুবলীগ নেতা ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় অভিযোগ করলেও ভুক্তভোগীর দাবি পুলিশ এখনো মামলা রেকর্ড করেনি। ফলে প্রাণভয়ে শঙ্কিত নির্যাতিতের পরিবার। তবে যুবলীগ নেতা মিঠুন আলী এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। নাটোর সদর থানায় দাখিলকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, শহরের উত্তর পটুয়াপাড়া এলাকার আলাউদ্দিন আলীর ছেলে বাসের হেলপার কোরবান আলীর কাছে ৩নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিঠুন আলী ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। কিন্তু চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে গত শনিবার মিঠুন আলীর নেতৃত্বে রাত ৮টার দিকে বলারীপাড়া এলাকার স্বপ্ন, তোতা, হাসান ও রিপনকে সঙ্গে নিয়ে শহরের ভবনাীগঞ্জ এলাকায় মিঠুনের অফিসে কোরবানকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর পুনরায় তার কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। কিন্তু চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাকি উপর্যুপরি হকিস্টিক ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।
এসময় কোরবানের পকেটে থাকা ৩ হাজার টাকাও কেড়ে নেয়া হয়। অপরদিকে মারধরের সময়ে কোরবানের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে কোরবানকে উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনার পরদিন রোববার কোরবান বাদী হয়ে যুবলীগ নেতা মিঠুনসহ ৫ জনকে অভিযুক্ত করে নাটোর সদর থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেন। তবে পুলিশ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলাটি রেকর্ড করেনি।
এ বিষয়ে নাটোর থানার ওসি (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম বলেন, অভিযোগটি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কোরবান আলী বলেন, তিনি দরিদ্র গাড়ি চালক। অভিযোগ দাখিল করায় আসামিরা তাকে ও পরিবারের লোকজনকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে।
এ অভিযোগ অস্বীকার করে যুবলীগ নেতা মিঠুন আলী বলেন, স্থানীয় কাউন্সিলরের সঙ্গে বিরোধের জের ধরে ওই কাউন্সিলরের পরামর্শে কোরবান মিথ্যা অভিযোগ করেছে। তাকে কে মারধর করেছে তা তিনি জানেন না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর