× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

বিল গেটসের চেয়েও ধনী

রকমারি

অনলাইন ডেস্ক | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১:২৭

একবার এক লোক বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি বিল গেটসকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, ‘পৃথিবীতে আপনার চেয়ে ধনী আর  কেউ আছে কি?’
বিল গেটস জবাব দিয়েছিল, ‘হ্যাঁ, এমন একজন আছেন যিনি আমার চেয়েও ধনী’।
তারপর বিল গেটস একটি গল্প বললেন.....
আমি তখন ধনাঢ্য বা বিখ্যাত ব্যক্তি ছিলাম না। একবার নিউইয়র্ক বিমান বন্দরে একজন সংবাদপত্র বিক্রেতার সঙ্গে আমার সাক্ষাত হলো। আমি একটি সংবাদপত্র কিনতে  চেয়েছিলাম কিন্তু দেখেছি আমার কাছে যথেষ্ট টাকা নেই। তাই আমি কেনার সিদ্ধান্ত ছেড়ে পেপারটি বিক্রেতার কাছে ফিরিয়ে দিয়েছিলাম।
আমি তাকে আমার অবস্থার কথা বলেছি। বিক্রেতা বললেন, ‘আমি আপনাকে বিনামূল্যে দিচ্ছি।’ আমি পত্রিকাটি নিয়েছিলাম।
দু থেকে তিন মাস পরে, আমি একই বিমান বন্দরে আবার অবতরণ করেছি এবং কাকতালীয়ভাবে আবারও সেই পত্রিকা বিক্রেতার সঙ্গে দেখা হলো। বিক্রেতা আমাকে আজও একটি পত্রিকা অফার করলেন। আমি অপারগতা প্রকাশ করেছিলাম এবং বলেছিলাম যে আমি এটি নিতে পারি না কারণ এখনও আমার পরিবর্তন আসেনি। তিনি বললেন, ‘আপনি এটি নিতে পারেন, আমি এটি আমার লাভ্যাংশ থেকে আপনাকে দিচ্ছি, আমার ক্ষতি হবে না’।
বিক্রেতার আগ্রহে আমি পত্রিকাটি নিয়েছিলাম।
ঐ ঘটনার ১৯ বছর পরে আমি বিখ্যাত এবং মানুষের কাছে পরিচিত হয়ে উঠি। হঠাৎ একদিন মনে পড়ে গেল সেই পত্রিকা বিক্রেতার কথা। আমি তাকে খুঁজতে শুরু করে দিলাম এবং প্রায় দেড় মাস অনুসন্ধানের পরে আমি তাকে খুঁজে  পেলাম।
আমি পত্রিকা বিক্রেতাকে জিজ্ঞাসা করলাম,‘ আপনি কি আমাকে চেনেন? ’ তিনি বলেছিলেন,‘ হ্যাঁ, আপনি বিল  গেটস। ’
আমি তাকে আবার জিজ্ঞাসা করলাম,‘ আপনার কি মনে আছে একবার আমাকে বিনামূল্যে একটি পত্রিকা দিয়েছিলেন? ’
বিক্রেতা বললেন,‘ হ্যাঁ, মনে আছে। আপনাকে দু’বার দিয়েছি। ’
আমি বললাম,‘ আপনি যে আমাকে বিনামূল্যে পত্রিকা দিয়েছিলেন তা আমি ফিরিয়ে দিতে চাই। আপনি আপনার নিজের জন্য যা চান বলুন? আমি এটি পূরণ করব।’
‘বিক্রেতা বললেন,‘ স্যার, আপনি এমন কিছু দিতে পারবেন না, যা আমার সাহায্যের সমান হবে।’
আমি জিজ্ঞাসা করলাম, ‘কেন?’
তিনি বলেছিলেন,‘ আমি আপনাকে সংবাদপত্র দিয়েছিলাম আমার দরিদ্র অবস্থান থেকে। আর আপনি এখন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হয়ে আমাকে সাহায্য করার চেষ্টা করছেন। আপনার সাহায্য কীভাবে আমার সাহায্যের সমান হবে? ’
সেদিন আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে সংবাদপত্রের বিক্রেতা আমার চেয়ে বেশি ধনী, কারণ তিনি কাউকে সাহায্য করার জন্য ধনী হওয়ার অপেক্ষা করেন নি।
মানুষের বুঝতে হবে যে সত্যিকারের ধনী ব্যক্তি হলো তাঁরাই যাদের প্রচুর অর্থের চেয়ে প্রাচুর্যপূর্ণ হৃদয় রয়েছে।
‘সত্যিকারের ধনী হওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
দিদার
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৯:৫৬

সহমত যার মন বড় সে প্রকৃত ধণী

হোসাইন বিন মানসুর
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৮:১৬

ঘটনাটি আক্ষরিক অর্থে সত্য কিনা সেটা প্রশ্নের দাবী রাখে কিন্তু ঘটনাটি যে যেকোন মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টে দিতে পারে সেটা সত্য।

Sheikh Moazzem
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৫:৪৮

একজন ব্যক্তি বিমান থেকে নামলো, অথচ তার কাছে পত্রিকা কিনার টাকা নেই। তাও আবার দু-দুবার

Citizen
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৪:২৯

The picture attached with this report is from where?

সুষমা
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১:৫৮

এই তো কয়েক মাসের ভিতরে সারা পৃথিবীতে আমূল পরিবর্তন আসবে।যেখানে শুধু ভালো মনের মানুষেরাই টিকবে যা ঈশ্বরের ঐশ্বরিক পরিকল্পনা।ধুয়ে মুছে সব সাফ হয়ে যাবে নোংরা আর লোভী মানুষেরা।

Selina
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১:৩২

Excellent discover of the Manabzamin.

অন্যান্য খবর