× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

মাঠে ফিরতে ব্যাকুল মিশু

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৫০

জাতীয় দলে খেলার অপেক্ষায় থাকেন প্রত্যেক ক্রিকেটার। কিন্তু সবার সৌভাগ্য হয় না। এ নিয়ে তাদের আক্ষেপের শেষ নেই। আর জাতীয় দলে ডাক পেয়েও খেলতে না পারার আক্ষেপটা তাদের জন্য আরো বড়! দেশের তরুণ পেসার ইয়াসিন আরাফাত মিশুকে সেই আক্ষেপই এখন দারুণ পোড়াচ্ছে। ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে নেয়া হয় তাকে। কিন্তু চোটের কারণে কোন ম্যাচ না খেলেই ছিটকে পড়েন। বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী অবশ্য জানিয়েছেন আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছেন ২০ বছর বয়সী এই তরুণ পেসার। তাকে পুরোপুরি সুস্থ করে তুলতে কাজ শুরু করবেন জাতীয় দলের নতুন ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতো।
তিনি বলেন, ‘মিশু বর্তমানে বিশ্রাম আছে। হ্যাঁ, আগের চেয়ে অবস্থা অনেক ভালো। আমি আশা করছি দ্রুতই সে ভালো হয়ে মাঠে ফিরবে। তবে তাকে নিয়ে বেশ কিছু কাজ করতে হবে। আমাদের জাতীয় দলের নতুন ফিজিও চট্টগ্রাম থেকে ফিরে জানাবেন কী করতে হবে। আশা করি তার পরামর্শ ঠিকভাবে পালন করলে দ্রুত মাঠে ফিরতে পারবে মিশু।’
মাঠে ফিরতে ব্যাকুল হয়ে আছেন মিশু। তিনি বলেন, ‘আগের চেয়ে অনেক ভালো আছি। যতটা জানি আমাদের নতুন ফিজিও জুলিয়ান চট্টগ্রাম থেকে ফিরে এসে আমাকে দেখবেন। তিনিই আমার রিহ্যাব কীভাবে করতে হবে তা ঠিক করে দেবেন। আশা করি ভালো হয়ে মাঠে ফিরতে পারবো। তবে খুব খারাপ লাগছে এত বড় সুযোগ হাত ছাড়া হয়েছে। প্রতিটি ক্রিকটারেরই স্বপ্ন থাকে জাতীয় দলে খেলার। কিন্তু আমি সেই সুযোগ পেয়েও খেলতে পরলাম না। আসলে আমার দুর্ভাগ্যই বলবো। ইনজুরিটা এমন সময় না হলে আমি হয়তো খেলতে পারতাম। নিজেকে প্রমাণ করতে পারতাম।’ আশা ছাড়েননি তিনি। মিশু বলেন, ‘আমি হতাশ, তবে আশা হারাইনি। আমি মনে করি আল্লাহ আমার পরীক্ষা নিচ্ছেন। আর তিনি যা করেন ভালোর জন্যই করেন। আশা করি নতুনভাবেই শুরু করতে পারবো।’
মিশুর স্পাইনাল কর্ডের (মেরুদন্ড) ইনজুরিটা নতুন নয়। সেই ২০১৩ তে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে থাকার সময়ই তার এই ব্যথা শুরু হয়। ৫ বছর আগের ওই পুরানো ব্যথাতেই কাতর এই পেসার। মিশু বলন, ‘আসলে আমার স্পাইনাল কর্ডের পাশে ব্যথাটা বেশ পুরানো। সেই অনূর্ধ্ব-১৯ দলে থাকতেই আমার সমস্যা শুরু হয়। মাঝে মাঝে ব্যথা থাকে না। কিন্তু শরীরের ওপর দিয়ে বেশি ধকল গেলে ব্যথা বাড়ে। আশা করি এবার ওয়ার্ক লোড আর ফিটনেস বজায় রেখে কাজ করলে সব ঠিক হয়ে যাবে।’
বিশ্রামে রাখা হয়েছে তাসকিনকে
ইনজুরি যেন পিছু ছাড়ছে না পেসার তাসকিন আহমেদের। পুরানো ইনজুরি কারণে তাকে রাখা হয়েছে বিশ্রামে। মাঠে ফিরতেও লাগবে দুই সপ্তাহ সময়। তাকে নিয়ে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী বলেন, ‘তাসকিনকেও বিশ্রামে দুই রাখা হয়েছে। দুই সপ্তাহ বিশ্রাম থাকার পরই বোঝা যাবে কী অবস্থা। আশা করি দ্রুত ও মাঠে ফিরতে পারবে। সাইড স্ট্রেইনে সমস্যা, তাই বিশ্রামটা প্রয়োজন।’ আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট দলে থাকলেও তাসকিনের মাঠে নামা হয়নি। পরে ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে ছিটকে যান নতুন করে ইনজুরিতে পড়ায়। এর আগে তাকে দীর্ঘদিন জাতীয় দলের বাইরে থাকতে হয়েছে পায়ের সমস্যার কারণে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর