× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

‘পেনাল্টির দুঃখ’ ইংলিশ রেড-ব্লুদের

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৫১

পশ্চিম লন্ডন ও ইতালির নেপলস শহরের দূরত্ব ১২২৬ মাইলের চেয়ে কিছু বেশি। তবে মঙ্গলবার রাতে শহর দুটিতে অবস্থান করা ইংলিশ ফুটবল ভক্তদের অভিজ্ঞতটা ছিল একই রকম। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গ্রুপ পর্বের শুরুতেই তারা হারতে দেখেছে প্রিমিয়ার লীগ জায়ান্ট চেলসি ও লিভারপুলকে। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ‘এইচ’ গ্রুপে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে পেনাল্টি মিসের কারণে ১-০ গোলে পরাজিত হয় চেলসি। আর নেপলসে ৮১ মিনিট পর্যন্ত গোলশূন্য সমতার পর পেনাল্টির কারণে পিছিয়ে পড়ে লিভারপুল। ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচটিতে শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলে হেরে যায় আলরেডরা। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে গত ২৫ বছরে লিভারপুল প্রথম ক্লাব যারা শিরোপা জেতার পরের মৌসুম শুরু করলো হার দিয়ে। সবশেষ ১৯৯৪ সালে এমন অভিজ্ঞতা হয়েছিল সিরি আ জায়ান্ট এসি মিলানের।
গত মৌসুমের গ্রুপ পর্বেও নাপোলির মাঠে হেরেছিল লিভারপুল।
তবে এবারের হার হজম করতে একটু কষ্ট হচ্ছে অলরেডদের জার্মান কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের। ৮০তম মিনিটে ডিবক্সে নাপোলির হোসে ক্যালিয়নকে চ্যালেঞ্জ জানান লিভারপুলের ইংলিশ ডিফেন্ডার অ্যান্ডি রবার্টসন। অনেকটা ইচ্ছা করেই মাটিতে পড়ে যান ক্যালিয়ন। আর জার্মান রেফারি ফেলিক্স ব্রাইচ বাজান পেনাল্টির বাঁশি। ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির (ভিএআর) সঙ্গে আলোচনার পরও সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন ব্রাইচ। স্পটকিক থেকে গোল করে নাপোলিকে এগিয়ে দেন ড্রিস মর্টেন্স। সব প্রতিযোগিতায় নাপোলির হয়ে ক্যারিয়ারে ১১৩ গোল করলেন এই বেলজিক উইঙ্গার। মর্টেন্সের সামনে আছেন কেবল আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনা (১১৫) ও মারেক হামসিক (১২১)। এরপর যোগ করা সময়ে (৯০+২) দ্বিতীয় গোল হজম করে লিভারপুল। দায় ডিফেন্ডার ভার্জিল ভ্যান ডাইকের। তার ভুল ব্যাকপাস থেকেই গোলটি করেন ফার্নান্দো ইয়োরেন্তে। তবে ক্লপ মনে করেন পেনাল্টি গোলটাই ম্যাচ পাল্টে দিয়েছে। ম্যাচের পর এই জার্মান কোচ সরাসরি বলেন, ‘আমার কাছে ব্যাপারটা একদম স্পষ্ট। ওটা পেনাল্টি ছিল না। কোনো খেলোয়াড় যখন ধাক্কা লাগার আগেই লাফ দেয় তখন সেটা পেনাল্টি হতে পারে না। ওই পেনাল্টিই ম্যাচ পাল্টে দেয়।’ ঘরের মাঠে স্প্যানিশ ক্লাব ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ৭৫তম মিনিটে পিছিয়ে পড়ে চেলসি। গোল করেন রদ্রিগো। তবে চেলসির হার এড়ানোর সুযোগ এসেছিল ৮৫তম মিনিটে। কিন্তু ইংলিশ মিডফিল্ডার রস বার্কলির পেনাল্টি মিসে আর তা হয়নি। তাতে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে কোচ ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের শুরুটা হলো হার দিয়ে। ২০১২ সালে খেলোয়াড় হিসেবে চেলসিকে প্রথম ও শেষবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ট্রফি জিতিয়েছিলেন ল্যাম্পার্ড। ম্যাচের পর তিনি বলেন, আমরা যথেষ্ট সুযোগ তৈরি করেছিলাম। একটি পেনাল্টিও পেয়েছিলাম। যা হোক এই হার আমাদের জন্য শিক্ষা। আমাদের হাতে আরো পাঁচ ম্যাচ বাকি আছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর