× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

ডেঙ্গুতে ২৪ ঘণ্টায় নতুন ভর্তি ৫৩৬

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৫৪

এ বছরের জানুয়ারি থেকেই ডেঙ্গু জ্বর শুরু হয় রাজধানীতে। এরপর আস্তে আস্তে তা বাড়তে থাকে। মে, জুন মাসে এসে তা ব্যাপক আকার ধারণ করে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। জুলাই এবং আগস্ট মাসে প্রায় দুই দশকের রেকর্ড ব্রেক করে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। একই সঙ্গে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়তে  থাকে। এখনও প্রতিদিনই বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর মৃতের সংখ্যা। এবছর এ পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে ২০৩ জনের মৃত্যুর খবর পেয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বিভিন্ন হাসপাতাল সূত্র বলছে, মৃতের সংখ্যা আরো বেশি হবে।
সরকারি হিসাবে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি প্রায় ৮৩ হা্‌জার দাঁড়িয়েছে। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮০ হাজার ৪২৭ জন। অর্থাৎ ৯৭ শতাংশ চিকিৎসা নিয়ে বাসায় গেছেন। চলতি মাসের ১৮ দিনে ১১ হাজার ৮৯৩ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বেসরকারি হিসাবে তা কয়েকগুণ বেশি হবে বলে বিশেষজ্ঞরা বলছেন। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে নতুন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ওঠা-নামার মধ্যে রয়েছে। তবে এখনও ঢাকার চেয়ে ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি অনেক বেশি। তাই সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্ন-ডেঙ্গু পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে কবে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ৫৩৬ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ৬১৫ জন। রাজধানী ঢাকার ৪১টি হাসপাতালে ১৭৫জন ও ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ৩৬১ জন। রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালের মধ্যে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ৪৭ জন, মিটফোর্ডে ২৩ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ৭ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ২২ জন, বিএসএমএমইউতে ১০ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ জন, বিজিবি হাসপাতালে ১ জন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল ৭ জন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ৯ জনসহ সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে মোট ১৩৬ জন ভর্তি হন। বেসরকারি অন্যান্য হাসপাতাল-ক্লিনিকে ৩৯ জনসহ ঢাকা শহরে সর্বমোট ১৭৫ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভাগীয় হাসপাতালে ৩৬১ জন ভর্তি হন। ঢাকা শহর ছাড়া ঢাকা বিভাগে ৮৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩৭ জন, খুলনায় ১৫১ জন, রংপুরে ৬ জন, রাজশাহীতে ২২ জন, বরিশালে ৪৮ জন, সিলেটে ৫ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ৩ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য মতে, রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৮২ হাজার ৯৯০ জন।

ভর্তি রোগীদের মধ্যে ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮০ হাজার ৪২৮ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ৪৪ হাজার ৪৬১ জন, ঢাকার বাইরে ৩৫ হাজার ৯৬৬ জন। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ২ হাজার ৩৬০ জন। তাদের মধ্যে রাজধানী ঢাকার হাসপাতালে ৯২৭ জন এবং ঢাকার বাইরে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৪৩৩ জন। তবে বেসরকারি হিসাবে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি কয়েকগুণ বেশি। এবছর এ পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সারা দেশে ২০৩ জনের মৃত্যুর খবর পেয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তা পর্যালোচনার জন্য সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে(আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে। সংস্থাটি এর মধ্যে ১১৬টি মৃত্যু ঘটনা পর্যালোচনা করে ৬৮ জনের মৃত্যু ডেঙ্গুজনিত বলে নিশ্চিত হয়েছে। এখনও পর্যালোচনা অব্যাহত রয়েছে। বিভিন্ন হাসপাতাল সূত্র বলছে, মৃতের সংখ্যা আরো বেশি হবে। আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি সেপ্টেম্বরে ১১ হাজার ৮৯৩ জন, আগস্টে ৫২ হাজার ৬৩৬ জন, জুলাইতে ১৬ হাজার ২৫৩ জন, জুনে ১ হাজার ৮৮৪ জন, মে মাসে ১৯৩ জন, এপ্রিলে ৫৮ জন, মার্চে ১৭ জন, ফেব্রুয়ারিতে ১৮ জন এবং জানুয়ারিতে ৩৮ জন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর