× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

প্রি অর্ডারে সাড়া ফেলেছে ওয়ালটন প্রিমো এইচএইট প্রো

অনলাইন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৭:০১

প্রযুক্তিপণ্যের বাংলাদেশি মাল্টিন্যাশনাল ব্র্যান্ড ওয়ালটন। সাশ্রয়ী দামে অত্যাধুনিক ফিচার সম্বলিত উচ্চমানের স্মার্টফোন দিয়ে ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করে নিয়েছে দেশীয় এই প্রতিষ্ঠান। দেশেই নিজস্ব কারখানায় দারুণ সব স্মার্টফোন তৈরি করছে ওয়ালটন। এরই ধারাবাহিকতায় ওয়ালটন বাজারে ছেড়েছে প্রিমো এইচএইট প্রো। প্রিমিয়াম মানের এই ফোনে ওয়ালটন দিয়েছে বড় পর্দার নচ ডিসপ্লে, ৩জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি রম, অক্টাকোর প্রসেসর, শক্তিশালী ব্যাটারি, দুর্দান্ত ক্যামেরাসহ আকর্ষণীয় সব ফিচার। ফলে প্রি-অর্ডারে ‘প্রিমো এইচএইট প্রো’ এন্টি লেভেলের ক্রেতাদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

ওয়ালটন সেল্যুলার ফোন বিক্রয় বিভাগের প্রধান আসিফুর রহমান খান জানান, ‘সবার জন্য নচ ডিসপ্লে’ দেয়ার লক্ষ্যে অবমুক্ত করা হয় ‘প্রিমো এইচএইট প্রো’। প্রি-অর্ডার দেয়া ক্রেতাদের জন্য দাম ধরা হয় মাত্র ৭,৪৯৯ টাকা। অনলাইনের ই-প্লাজায় ফোনটি প্রি-অর্ডারের জন্য উন্মুক্ত করার সাথে সাথে হুমড়ি খেয়ে পড়েন ক্রেতারা।
একসঙ্গে বিপুল পরিমাণ ক্রেতা ওয়ালটনের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করায় তাদের সামাল দিতে সার্ভার এবং আইটি কর্মীদের বেশ বেগ পেতে হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রিমো এইচএইট প্রো স্মার্টফোনে ক্রেতাদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়ায় আমরা অভিভূত। যারা প্রি-অর্ডার দিয়েছেন, তাদের কাছে ডিভাইসটি হস্তান্তর করা হচ্ছে। ব্যবহারকারীরা এই ফোনটিকে দেশের সেরা বাজেট ফোন বলছেন। খুব শিগগিরই দেশের সব ওয়ালটন প্লাজা, ওয়ালটন মোবাইল ব্র্যান্ড এবং রিটেইল আউটলেটে সব ক্রেতার জন্য ফোনটি উন্মুক্ত করা হবে।

ওয়ালটন সূত্রে জানা গেছে, ক্যামেলিয়ন ব্ল্যাক, সাইয়ান ব্লু এবং রেড- এই তিনটি আকর্ষণীয় রঙের ফোনটির বিশেষ ফিচারের মধ্যে রয়েছে ৫.৭১ ইঞ্চির এইচডি প্লাস নচ ডিসপ্লে, অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেম, ১.৬ গিগাহার্জ গতির এআরএম কর্টেক্স-এ৫৫ অক্টাকোর প্রসেসর, ৩জিবি ডিডিআর৪ র‌্যাম, ৩২ জিবি রম, পাওয়ার ভিআর জিই৮৩২২ গ্রাফিক্স, ৩৫২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি, এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত পিডিএএফ প্রযুক্তির এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ বিএসআই ১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা, পিডিএএফ প্রযুক্তির বিএসআই ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা, ডুয়াল সিমে ফোরজি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ফেস আনলক ইত্যাদি। ১ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবাসহ এই ফোনে রয়েছে ৩০ দিনের রিপ্লেসমেন্ট সুবিধা পাবেন ক্রেতা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর