× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার

উজ্জ্বল অভিষেকের পর শঙ্কায় আমিনুল

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৪০

জাতীয় দলের জার্সি গায়ে অভিষেকটা দারুণ হয়েছে আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের। কিন্তু একই দিনে হতাশায় ডুবতে হলো এ তরুণ টাইগার ক্রিকেটারকে। ইনজুরির কারণে ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে আজ খেলতে পারছেন না তিনি। বুধবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ শেষেই বাংলাদেশ দলের তরুণ লেগ স্পিনারকে যেতে হয় ক্লিনিকে। বাঁ হাতে পড়েছে তিনটা সেলাই। দুর্দান্ত শুরু করা আমিনুলের সিরিজ অনেকটাই শেষ!
চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে ফলো থ্রুতে বল ধরতে গিয়ে বাঁ হাতে চোট পান আমিনুল। গতকাল আমিনুল বলেন, ‘বাঁ হাতে ব্যথা লাগছে। ক্লিনিকে যেতে হয়েছিল, খেলতে গেলে একটু লাগে।
ব্যথা এখন কমেছে। দেখা যাক কী হয়।’ তবে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছেন, সিরিজে  আমিনুলের খেলার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘কাল (বুধবার) রাতে ওকে সেলাই দেয়া হয়েছে। এখন ব্যান্ডেজ করা আছে। খুলতে সময় লাগবে। অনেক সময় সেলাই নিয়ে খেলা যায়। তবে দু-এক দিন তো দেখতে হবে। সিরিজ এখন যে পর্যায়ে আছে, তার খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ।’
আমিনুলের বাঁ হাতে চোট ছিল আগেই। বুধবার তিনি সেখানে আবার ব্যথা পেয়েছেন। আর এতে অনেকটাই শেষ হয়ে গেছে সিরিজ। দুর্দান্ত শুরুর পর গতকাল আমিনুল বলেন আন্তর্জাতিক অভিষেক এতটা ভালো হবে, নিজেও ভাবতে পারেননি। ‘কেমন যেন স্বপ্ন স্বপ্ন মনে হচ্ছে। বাংলাদেশ দলে খেলার স্বপ্ন সেই ছোটবেলা থেকে দেখছি। তবে এতটা চিন্তা করিনি যে এভাবে স্বপ্নটা পূরণ হবে’- বলেন আমিনুল।
ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ দুই ম্যাচের জন্য বাংলাদেশ দলে আমিনুল ইসলাম বিপ্লব আসেন চমক হিসেবেই। মূলত ব্যাটসম্যান কাম লেগস্পিনার হলেও লাল সবুজ জার্সি গায়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বিশেষজ্ঞ লেগস্পিনার হিসেবেই যাত্রা শুরু করেন বিপ্লব। নিজের প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে ১৮ রানের বিনিময়ে দুই উইকেট নিয়ে সবার প্রশংসাই কুড়িয়েছেন শরীয়তপুরের এ ২০ বছর বয়সী ক্রিকেটার। কিন্তু ফিল্ডিংকালে জিম্বাবুয়ান অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজার জোরালো স্ট্রেইট ড্রাইভ মাটিতে ঝাপিয়ে থামাতে গিয়ে বাঁ হাতের আঙুলে চোট পান আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। আঘাতের জায়গায় তিনটি সেলাই দিতে হয়েছে। আর গতকাল বাংলাদেশ দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘যেখানে বল লেগেছে, ঠিক সেখানে আগেও ব্যথা ছিল, ইনজুরি ছিল। তাই মাসাকাদজার শটে সে ব্যথা পেয়েছে দ্বিগুণ। এখনো চিকিৎসকদের চূড়ান্ত রিপোর্ট আসেনি। বিপ্লবের ২১ তারিখের ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা খুব কম। আর ইনজুরি ভালোর দিকে থাকলে হয়তো ২৪ সেপ্টেম্বর শেরে বাংলায় ফাইনাল খেলতে পারে।’ আর চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ‘এরকম ইনজুরিতে হাত, তালুতে বা আঙুলে সেলাই দিতে হলে অন্তত এক সপ্তাহ বিশ্রামে থাকতে হয়। আমরা এক সপ্তাহের আগে সেলাইও কাটি না। তবে এক্ষেত্রে যদি তাকে আগে খেলানোর পরিকল্পনা থাকে, তখন আমরা ব্যবস্থা করে দেই। ক্ষতস্থানটা যতটা সম্ভব নিরাপদ রেখে ভারী ব্যান্ডেজ পেঁচিয়ে দেয়া হয়। যাতে বল ও অন্য কিছুর আঘাত না লাগে। এখন টিম ম্যানেজমেন্ট ও দল চাইলে আমরা চেষ্টা করবো তার আঙুলকে যতটা সম্ভব নিরাপদ রেখে মাঠে নামাতে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর