× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
আলাপন

‘আমি বরাবরই নতুন কিছু খুঁজি’

বিনোদন

এন আই বুলবুল | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৯:২৭

টিভি নাটকে এ সময়ে যারা নিয়মিত অভিনয় করছেন তাদের মধ্যে অন্যতম আশনা হাবিব ভাবনা। অভিনয় এবং গ্ল্যামার দু’দিক দিয়েই বেশ এগিয়ে এ অভিনেত্রী। এরইমধ্যে অভিনয়ে তৈরি করেছেন নিজস্ব স্টাইল। সম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে অভিনয় করে তিনি তার দক্ষতার প্রমাণও দিয়েছেন। নির্মাতাদের কাছে ভাবনা মানে ভিন্ন কিছু। আর তিনিও নির্মাতাদের সে আস্থার প্রতি সম্মান জানিয়ে কাজের ক্ষেত্রে চেষ্টার শতভাগ সপে দেন। এ প্রসঙ্গে ভাবনা বলেন, একজন নির্মাতা আমার ওপর যদি একটি চ্যালেঞ্জিং চরিত্রের জন্য আস্থা পান, সেখানে তার প্রত্যাশা পূরণ করা আমার দায়িত্ব। আমি বরাবরই নতুন কিছু খুঁজি।


সেখানে নির্মাতারা আমাকে সেই নতুনের পথ দেখিয়ে দেন। আমি যদি তাদের প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারি তাহলে নির্মাতারা কেন আমাকে নিবেন?  আর দর্শকই বা আমার কাজ কেন গ্রহণ করবেন? চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে অভিনয় করার জন্য কোনো স্যাক্রিফাইস করতে আমি রাজি নই। শিল্পী হিসেবে আমি সবসময় গল্প ও চরিত্রে নতুনত্ব খুঁজি। গেল ঈদে এ অভিনেত্রীকে দেখা গেছে বেশ কিছু ভিন্ন ধারার গল্পের নাটক-টেলিছবিতে। সেসবের মধ্যে ‘ফেরা’ টেলিছবিটি দর্শকমহলে দারুণ সাড়া ফেলে। টেলিছবিটি নির্মাণ করেছেন অনিমেষ আইচ। ভাবনা জানান, ঈদে এ টেলিছবির গল্প ও চরিত্রটি দর্শকের মনে দাগ কেটেছে। অভিনেত্রী হিসেবে এটিই তার বড় প্রাপ্তি বলেও মন্তব্য করেন তিনি। এটি ছাড়াও ঈদে ভাবনাকে দেখা গেছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘টু মাচ’ এবং ‘আমি কবি’ সহ কয়েকটি নাটকে। একক নাটক-টেলিছবির বাইরে ভাবনা বর্তমানে কয়েকটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন।

এগুলোর মধ্যে রয়েছে নজরুল ইসলাম রাজুর ‘ঘুমন্ত শহর’, এস এ হক অলিকের ‘জায়গীর মাষ্টার’, রোকেয়া প্রাচির ‘সোনালী দিন’ ও অনিমেষ আইচের ‘জোসনাময়ী’। প্রতিটি নাটকে তিনি অভিনয় করছেন প্রধান চরিত্রে। টিভি নাটকের বর্তমানে গল্প নেই বলে অনেকে মন্তব্য করেন। সেখানে ভাবনা অভিনীত নাটকগুলো বরাবরই গল্পনির্ভর। এটিকে ভাবনা কিভাবে দেখেন? তিনি বলেন, আমি গতানুগতিক কাজ করি না। আমার কাজের সংখ্যা অনেকের চেয়ে কম। কিন্তু বরাবরই গল্পনির্ভর ও আমার চরিত্রে প্রাধান্য আছে এমন নাটকেই আমি অভিনয় করি। তবে এ সময়ে টিভি নাটকে বাজেটের খুব সংকট। সেই সংকট থেকে বের হয়ে আসতে হবে। বাজেট সমস্যা দূর হলে আমাদের নাটকে আরও ভালো কিছু করা সম্ভব। টিভি নাটকের অনেক অভিনেত্রী এই সময়ে চলচ্চিত্রে কাজ করছেন। অনেকে আবার চলচ্চিত্রে নিয়মিত হওয়ার  জন্য বেশ দৌঁড়ঝাপও  করছেন। কিন্তু ভাবনাকে একটির পর এখনো নতুন কোনো চলচ্চিত্রে দেখা না যাওয়ার কারণ কি? ভাবনা বলেন, আমি চাইলেই ফিল্মে অভিনয় করতে পারি। কিন্তু করছি না।

না করার কয়েকটি কারণ রয়েছে। আমি ‘ভয়ংকর সুন্দর’ ছবিটি করার আগেও অনেক ছবির প্রস্তাব পেয়েছি। সেগুলো করা হয়নি। এখনো আমি ছবির প্রস্তাব পাই। তবে আমি যে ধরনের গল্প ও চরিত্র খুঁজছি তেমন পাচ্ছি না। আমি এমন একটা চরিত্রে অভিনয় করতে চাই যেটি দর্শক সবসময় মনে রাখবে। এ পর্দাকন্যা ক্যারিযার নিয়ে তার পরিকল্পনার কথাও বলেন। তিনি বলেন, আমি গ্ল্যামারের মধ্যে বন্দি থাকতে চাই না। সব ধরনের চরিত্রে কাজ করে প্রকৃত অভিনেত্রী হতে চাই। অন্যদের সঙ্গে নিজেকে কখনো তুলনা করবো না। কারণ আমাকে নানা চরিত্রে অভিনয় করতে হবে। যার মধ্য দিয়ে নিজেকে একজন অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার সুযোগ পাবো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর