× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার

রামগঞ্জে কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যাচেষ্টা

বাংলারজমিন

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি | ৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৮:২৬

 লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে এলজিএসপির রাস্তার উন্নয়ন কাজের অনিয়মের প্রতিবাদ করায় মো. রাসেল হোসেন নামের এক কলেজছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে ইউপি সদস্য নুরুল আমিন ও তার লোকজন। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন রাসেলকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেছে। রাসেল উপজেলার ডল্টা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র। নুরুল আমিন শুধু পিটিয়ে ক্ষান্ত হননি তিনি কলেজছাত্র রাসেলের সঙ্গে থাকা মোবাইল, স্বর্ণের চেইন ও নগদ টাকা লুটপাট করেছে। গতকাল সকালে উপজেলার ২নং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আশারকোট গ্রামের মোহাম্মদিয়া মাদ্রাসার সামনে এ ঘটনা ঘটে। সৃষ্ট ঘটনায় রাসেল বাদী হয়ে নুরুল আমিনকে আসামি করে রামগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ২নং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আশারকোটা গ্রামের হাজী বাড়ির সামনে এলজিএসপি প্রকল্পের ২ লাখ টাকা ব্যায়ে ৬শ’ ফুট রাস্তায় সলিংয়ের নির্মাণ কাজ করার করার কথা থাকলেও স্থানীয় আশার কোটা গ্রামের ইউপি সদস্য নুরুল আমিন পুরানো ইটের রাবিশ দিয়ে রাস্তার নির্মাণ করতে গেলে হাজী বাড়ির ইদ্রিস আলীর কলেজে পড়ুয়া ছেলে মো. রাসেল হোসেন প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নুরুল আমিন তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে সঙ্গে থাকা মোবাইল, স্বর্ণের চেইন ও নগদ টাকা লুটপাট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য নুরুল আমিন জানান, রাসেল কলেজে পড়ে।
ওই ছেলে সড়ক নির্মাণ কাজের কি বুঝে। আমার কাজে বাধা প্রদান করায় কিছু উত্তম-মধ্যম দিয়ে ছেড়ে দিয়েছি। রামগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন জানান, অভিযোগের আলোকে নুরুল আমিনের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর