× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার

কটিয়াদীতে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট ও সাংবাদিক পরিচয়ধারী তিন ব্যক্তি গ্রেপ্তার

বাংলারজমিন

কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১০ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৩৯

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে একজন ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেট ও দুইজন সাংবাদিক পরিচয়দানকারীসহ তিন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের উত্তর ভাট্টা শকুনবাড়ি মোড় থেকে তাদের আটক করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো জসিম উদ্দিন (৩৫), পিতা তারা মিয়া, গ্রাম লড়িয়াকুল, শ্রীমঙ্গল, জেলা মৌলভীবাজার, মাসুল ইসলাম সবুজ (৪০), পিতা আসাদুজ্জামান, গ্রাম তেলিচারা, বোয়ালিয়া, কটিয়াদী, মো. কাউসার (৪৫), পিতা মফিজ উদ্দিন, পলাশ, নরসিংদী। বুধবার ধৃতদেরকে কিশোরগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করে পুলিশ। এ ব্যাপারে উপজেলার করগাঁও এলাকার ব্যবসায়ী কবির উদ্দিন কটিয়াদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। জানা যায়, মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের উত্তর ভাট্টা বাজারের রড-সিমেন্টের দোকান মালিক কবীর উদ্দিনের কাছে নানা টালবাহানা করে এক হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি ওষুধের দোকানে গিয়ে ভেজাল ও যৌন উত্তেজনক ওধুষ আছে বলে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে। তাদের কথাবার্তায় দোকান মালিকের সন্দেহ হলে তাদের পরিচয় জানতে চান। তারা বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালের সাংবাদিক পরিচয় দেয়।
কিন্তু তাদের পরিচয়পত্রের অফিসে যোগাযোগ করে ব্যর্থ হন। এ ঘটনায় স্থানীয় বাজারের জনতা তাদেরকে আটক করে ইউপি চেয়ারম্যানকে বিষয়টি জানায়। ইউপি চেয়ারম্যান শরাফ উদ্দিন লস্কর ভাট্টা পুলিশ ফাঁড়িতে সংবাদ দিলে পুলিশ তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। আটকের সময় তাদের কাছ থেকে একটি মাইক্রোফোন, একটি ক্যামেরা, ৩টি মোবাইল ফোন ও ১ হাজার টাকা জব্দ করা হয়। কটিয়াদী থানার ওসি মো. ইকবাল হায়াত বলেন, উপজেলার করগাঁও বাজারে বিভিন্ন দোকানে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার সময় জনতা তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ব্যাপারে একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর