× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার

নারায়ণগঞ্জে ১৪ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ থেকে | ১১ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৩৯

 নারায়ণগঞ্জে ১৪ জন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এমএ স্বপন মন্ডল নামে এক ব্যবসায়ী আদালতে মামলা করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুরুন নাহার ইয়াসমিনের আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার বিবাদীরা হলেন- নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিক দৈনিক সচেতন পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক কাজী মো. ইসলাম মিয়া একই পত্রিকার বার্তা সম্পাদক ইমতিয়াজ আহম্মেদ, সময় নারায়ণগঞ্জ পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক জাবেদ আহমেদ জুয়েল একই পত্রিকার বার্তা সম্পাদক শাহীন, দৈনিক সংবাদ চর্চা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মুন্না খান একই পত্রিকার বার্তা সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, দৈনিক স্বাধীন বাংলাদেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইলিয়াছ মোল্লা একই পত্রিকার বার্তা সম্পাদক জসিম উদ্দিন, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সোহেল রানা, দৈনিক যুগের চিন্তা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক আবু আল মোরসালীন বাবলা, একই পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক এজাজ কোরেশী, দৈনিক মাতৃ ভূমির খবর পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক রেজাউল করিম একই পত্রিকার উপদেষ্টা সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, নির্বাহী সম্পাদক এনামুল কবির।
আদালত সূত্র জানান, ৫ই অক্টোবর উল্লেখিত বিবাদীরা তাদের নিজ নিজ পত্রিকায় বাংলাদেশ ট্যাংকলড়ি অনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি ও জেটএসএ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর এবং মেঘনা পেট্রোলিয়ামের ডিলার এমএ স্বপন মন্ডলের নামে ‘ক্যাসিনো ডন সেলিম প্রধান গ্রেপ্তার হলেও প্রকাশ্যে স্বপন মন্ডল’ শিরোনাম সহ বিভিন্ন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এতে বাদী স্বপন মন্ডল পারিবারিক, সামাজিক, রাজনৈতিক ও ব্যবসায়ীক ভাবে সুনাম ক্ষুণ্ন হয়েছে।
মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী হাবিবুর রহমান মাসুম জানান, আমরা ন্যায় বিচারের স্বার্থে মামলা করেছি। মামলা সম্পর্কে জানতে চাইলে দৈনিক যুগের চিন্তার নির্বাহী সম্পাদক এজাজ কোরেশী বলেন, এ বিষয়ে আদালতের কোন কাগজপত্র এখনও আমাদের হাতে আসেনি। যেহেতু পিবিআইকে তদন্ত দেওয়া হয়েছে আমরা তদন্ত কমিটির কাছে আমরা সংবাদের যথাযথ প্রমাণ হাজির করবো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর