× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

আবরার হত্যা নিয়ে মন্তব্য, জাতিসংঘ দূতকে তলব

অনলাইন

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ১৩ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ১:৪০

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার হত্যা নিয়ে মন্তব্য করায় বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পোকে তলব করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
সূত্র জানায়, আবরার ফাহাদ হত্যার পর জাতিসংঘের ঢাকা অফিস যে বিবৃতি দিয়েছিল, সে বিষয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হয় আবাসিক প্রতিনিধির কাছে। এর আগে বুধবার এক বিবৃতিতে এ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি স্বাধীন তদন্তের মাধ্যমে এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আহ্বান জানানো হয় জাতিসংঘের এক বিবৃতিতে। আজ রোববার দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় তলবের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে কোনো মন্তব্য করেননি মিয়া সেপ্পো।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, মিয়া সেপ্পোকে দুটি কারণে ব্যাখা চেয়ে তলব করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রথমটি হলো,  মুক্তভাবে নিজের মতপ্রকাশের জন্য বুয়েট ছাত্র আবরারকে হত্যা করা হয়েছে বলে মন্তব্য করা হয়েছে জাতিসংঘের বিবৃতিতে, যা সঠিক নয়। ভারতের সঙ্গে করা চুক্তি নিয়ে অনেকেই নানা মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনা-মন্তব্য করেছেন। সরকার কাউকে তার মত প্রকাশে বাধা দেয়নি। এমনকি আবরার খুন হওয়ার আগ পর্যন্ত সে ফেইসবুকে কী লিখেছে, তা সরকার জানতো না।
দ্বিতীয়ত, উন্নত বিশ্বে যখন কোনো ছাত্র হত্যার ঘটনা ঘটে, তখন তা নিয়ে জাতিসংঘকে কথা বলতে দেখা যায় না। বাংলাদেশে কোনো ঘটনা ঘটলেই তাকে মত প্রকাশের স্বাধীনতার সঙ্গে জড়ানো হয় কেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
অনিচ্ছুক
১৩ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ৭:৪৭

আসলে বাংলাদেশের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ব্যর্থতার জন্য জাতিসংঘ ও দায়ী। কারন তারা বিনা ভোটের এই মিড নাইট সরকারকে বৈধতা দিয়েছে। একটি বার ও বলেনি বিনা ভোটের সরকার কে সমর্থন দিতে পা্রি না।

shishir
১৩ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ৭:৩৮

জাতিসংঘ ও আজ ব্রিটিশ আমেরিকান দের নিরদেশে কুটনীতির সকল নিয়ম কানুন বিসরজন দিয়ে রাস্তায় নেমেছে তাইতো বিশের আজ এই দশা, চারদিকে অস্থিরতা যুদ্ধ আর হানাহানী।

রিপন
১৩ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ৫:৫৬

বটে! বাংলাদেশ সরকার যে কিছুই না জানা ধোয়া তুলসি পাতা তা আর বলতে! মাত্র ক' দিন আগেই র‍্যাবকে ভারতে নিগ্রহ করে তারপর ফেরত দেয়া হলো - বাংলাদেশ সরকার তার কিছুই জানে না, তাই আনুষ্ঠানিকভাবে আজ পর্যন্ত ভারতের কাছে দায়সারা গোছের হলেও সামান্য প্রতিবাদটুকুনও জানায় নি, এমনকি ভারতীয় হাই কমিশনারকে তলবও করে নি, আর আজ বসেছে জাতিসংঘ দূতকে তলব করতে? কেন রে বাওয়া? শহিদ আবরারের পোস্টটির মতো, র‍্যাবকে ভারতীয়দের নিগ্রহের ঘটনার মতো, মিসেস সেপ্পির বিবৃতিটিও না জেনে কিছুই না জানা ধোয়া তুলসি পাতাটি হয়ে থাকতে অসুবিধাটি কোথায় ছিল?

অন্যান্য খবর