× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার
বাংলাদেশ-ভারত ফাইনাল আজ

শিরোপা যুদ্ধে নামছে মেয়েরা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৫ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৪৩

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে আজ ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ফুটবলপ্রেমীদের চোখ শুধু ওই ম্যাচের দিকে থাকলেই চলবে না। দৃষ্টি দিতে হবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের দিকেও। ভুটানের চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যে ভারত। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে শিরোপা নির্ধারণী লড়াই। নারী ফুটবলে বাংলাদেশ ফুটবলের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে দাঁড়িয়েছে ভারত। আর অনূর্ধ্ব ১৫-নারী সাফ টুর্নামেন্টে সে প্রতিদ্বন্দ্বিতা আরো বেশি। গত কয় আসরে দু’দলের লড়াইটা হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি।
একবার বাংলাদেশ শিরোপা জেতে তো অন্যবার ভারত। গ্রুপ পর্বের লড়াইটাও হয় শ্বাসরুদ্ধকর। গত আসরে এই ভারতের কাছেই মুকুট হারাতে হয়েছিলো বাংলাদেশের। তাই আজকের ম্যাচটি সামসুন্নাহারদের জন্য প্রতিশোধের ম্যাচ। এবার রাউন্ড রবিন লীগের এক মাত্র সাক্ষাতে দু’দলের ম্যাচটি ১-১ গোলে শেষ হয়। বাংলাদেশের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন আশা করছেন ফাইনাল ম্যাচটাও হবে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ দলের অন্যতম সফল এই কোচ বলেন, ‘ফাইনাল খেলাটি যথেষ্ট প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। যে কোন দলই জিততে পারে। সবার জন্য ফিফটি-ফিফটি চান্স।’ সেই সঙ্গে একটি দুঃসংবাদও দিলেন তিনি, ‘দলে একটি ইনজুরি সমস্যা আছে। আমাদের অধিনায়ক-ফরোয়ার্ড শামসুন্নাহার জুনিয়র গ্রোয়েন ইনজুরিতে পড়েছে।’ তাহলে কি অধিনায়কের ফাইনালে খেলার সম্ভাবনা নেই? ছোট বলেন, ‘এটা এখনই বলা যাচ্ছে না। আমাদের হাতে এখনও বেশ কয়েক ঘণ্টা সময় আছে ফাইনালের আগে। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করছি শামসুন্নাহারকে ফিট করে তোলার জন্য। ওর জন্য শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করবো। দেখা যাক কি হয়।’ ছোটন আরো জানিয়েছেন ভারত যেহেতু আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে। তাদের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলও আক্রমণাত্মক ফুটবলই উপহার দেবে ফাইনাল ম্যাচে। সবশেষে ছোটন জানান, তার দলের মেয়েদের মনোবল খুব ভালো আছে এবং সোমবার দলের সবার রিকভারি ট্রেনিং হয়েছে। শিরোপা জেতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। চার জাতির এই টুর্নামেন্টে দুটি করে জয় ও এক ড্র নিয়ে ফাইনালে উঠে দু’দল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর