× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার

ভারত সফরের আগে বোলারদের ইনজুরি নিয়ে চিন্তায় প্রধান নির্বাচক

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৬ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৯:০৬

এই মাসেই ভারত সফরের জন্য দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সেখানে শুরুতেই তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এরপর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হবে ইন্দর ও কলকাতার ইডেন গার্ডেনে। গত ২০ বছরে ভারত গিয়ে মাত্র একটি টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। শুধু তাই নয়, এই সিরিজ দিয়েই শুরু হবে সাকিব আল হাসানদের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের চ্যালেঞ্জ। সবদিক থেকে বলার অপেক্ষা রাখে না সিরিজটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ টাইগারদের জন্য। তাই দল নির্বাচনে দেশের প্রথম শ্রেণির চার দিনের ক্রিকেটে বেশ ভালোভাবেই নজর দিয়েছেন নির্বাচকরা। জাতীয় ক্রিকেট লীগে পারফরম্যান্স দেখেই ভারত সফরের জন্য দল ঘোষণা করা হবে বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।
শুধু তাই নয়, দেশের ক্রিকেটের পাইপ লাইন, ‘এ’ দলসহ নানা বিষয়ে কথা বলেন তিনি। তার কথোপকথনের মূল অংশ তুলে ধরা হলো-
প্রশ্ন: ভারত সফরের দল ঘোষণা কবে?
মিনহাজুল: ভারত সফরের জন্য আমরা এনসিএলে আরেকটি রাউন্ড দেখবো, এরপরে দল ঘোষণা করা হবে।
প্রশ্ন: এনসিএলের প্রথম রাউন্ডের পারফরম্যান্স কেমন দেখলেন?
মিনহাজুল: ইমরুল কায়েস ডাবল সেঞ্চুরি করেছে। এখন মাত্র একটি রাউন্ড গিয়েছে। বলা মুশকিল। আরেকটি রাউন্ড গেলে তারপর বোঝা যাবে সবকিছু। ঘরোয়া ক্রিকেটের পারফরম্যান্স কিন্তু একটু অন্যরকম। এখানে নিজের সক্ষমতা এবং নিজেকে মানিয়ে নেয়ার বিষয় থাকে। কেননা অনেক খেলোয়াড় একসঙ্গে খেলে। ক্লাবের দিকে খেলে বা অন্য জায়গায় খেলে, তারপর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ওরা খুব অল্প সময়ের জন্য এক সঙ্গে হয়। তো সে হিসেবে এভাবে পারফরম্যান্স করাটা ক্রিকেটারদের জন্য অনেক ভালো। ইমরুল গত দুই মাস খুব কঠিন সময়ে ছিল ওর পরিবার নিয়ে। তারপর এভাবে ফিরে ডাবল সেঞ্চুরি করা কিন্তু দারুণ।
প্রশ্ন: ভারতের ২০ উইকেট নেয়ার লক্ষ্য থাকবে কিনা?
মিনহাজুল: টেস্ট ক্রিকেটে এটা অনেক কঠিন আগের থেকে বলা যে আপনি জিততে যাবেন না হারতে যাবেন কিংবা ড্র করতে যাবেন। কারণ এখানে প্রতিটি ঘণ্টা এবং প্রতিটি সেশনে কিন্তু খেলাটি পরিবর্তন হয়। সুতরাং এখান থেকে আপনি বলতে পারবেন না যে আমরা কী করতে যাচ্ছি। একটি দল যখন সফরে যায় একটা লক্ষ্য থাকে ভালো ক্রিকেট খেলার। পাঁচদিন যেন আপনি ভালো ক্রিকেট খেলতে পারেন এই মানসিকতা নিয়ে আপনাকে যেতে হবে এবং ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে। তখন আপনি অ্যানালাইসিস করতে পারবেন প্রতিটি দিন এবং প্রতিটি সেশনের পরে ফলাফল কোনদিকে যাচ্ছে। যেহেতু আপনি ২০টি উইকেটের কথা বলছেন, এটি অনেক হার্ড লাইন বিদেশে আমাদের জন্য। লঙ্গার ভার্সনে আমরা যেটি নিয়ে চিন্তাভাবনা করছি, কাজ করছি। আমাদের ফাস্ট বোলাররা, স্পিনাররা দুই ইনিংস মিলিয়ে যেন অনেক ওভার বোলিং করতে পারে। কারণ স্কিল ফিটনেসের উপরে কোনো কিছু নেই। তবে আমাদের বোলাররা অনেক অভিজ্ঞ এবং স্কিল আছে। অনেক বোলারের যথেষ্ট অভিজ্ঞতা আছে। তা কাজে লাগাতে পারলে অবশ্যই ভারত চাপে থাকবে।
প্রশ্ন: শ্রীলঙ্কায় ‘এ’ দলের পারফরম্যান্স কেমন হলো?
মিনহাজুল: সবমিলিয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে পারফরম্যান্স অনেক ভালো লেগেছে এই কারণে যে সেখানে অনেক কঠিন কন্ডিশন ছিল। আর প্রথম দিকের খেলাগুলো বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পরে কিন্তু বেশ টাইট সূচি হয়েছে এবং আমরা যে জায়গায় ছিলাম সেই জায়গা থেকে প্রায় ৮০ কিলোমিটার প্রতিদিন আশা-যাওয়ার মধ্যে খেলা, একই ভেন্যুতে অনুশীলন করা, সবমিলিয়ে অনেক কঠিন কন্ডিশন গিয়েছে। এরপরেও খেলোয়াড়রা যথেষ্ট ভালো খেলেছে এবং এই ধরনের খেলা যদি ধারাবাহিকভাবে খেলতে পারে তাহলে লঙ্গার ভার্সন ক্রিকেটে আগামী সিরিজগুলোতে ভালো করতে পারবে এবং উন্নতি করতে পারবে। আমাদের কিন্তু বিদেশ সফরের পারফরম্যান্স সব সময় আপ টু দা মার্ক হয় না। আমার বিশ্বাস যে এবার যে অভিজ্ঞতা তারা পেয়েছে ম্যাচগুলতে, এটা অনেক কাজে লাগবে সামনে।
প্রশ্ন: পর্যাপ্ত পেস বোলিং রিসোর্স আছে কিনা?
মিনহাজুল: গত ছয় মাস ধরে আমরা পেস বোলারদের নিয়ে যথেষ্ট শঙ্কায় আছি। কারণ এখন এমন একটি অবস্থা দাঁড়িয়েছে যে অনেক খেলোয়াড় ইনজুরিতে। যদি এক থেকে দশজনের একটি তালিকা করি তাহলে দেখা যাবে পাঁচজন খেলোয়াড়ই ইনজুরিতে পড়ে আছে। এইচপিতে অনেক তরুণ খেলোয়াড় আছে, তারাও ইনজুরিতে পড়েছে। এটি আমাকে যথেষ্ট ভোগাচ্ছে। এখন কিছু খেলোয়াড় রিকভার করেছে। আমাদের পেস বোলারদের নিয়ে সব সময় একটি প্রশ্ন আছে যে আমাদের ফিটনেস নেই। এখন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট থেকে আমরা যেভাবে ফিটনেসের জন্য গুরুত্ব দিচ্ছি এক থেকে দুই বছরের মধ্যে এর ফলাফল ইনশাআল্লাহ্‌ পাওয়া যাবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর