× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার

ত্রিশালে পাষণ্ড মা’র কাণ্ড

বাংলারজমিন

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি | ১৭ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৭:৫৬

ত্রিশালে ১৬ দিন বয়সী শিশু পুত্রকে পানিতে নিক্ষেপ করে হত্যা করেছে এক পাষণ্ড মা। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দিয়েছে এলাকাবাসী। ঘটনাস্থলে উৎসুক জনতা ভিড় করেছেন। ঘাতক মা রুনা আক্তার ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, বেশি সন্তান হওয়ার কারণে সে নিজেই তার সন্তানকে পানিতে ফেলে হত্যা করেন। এলাকাবাসী বলছে, ঘন ঘন সন্তান হওয়ার কারণে এলাকার লোকজন কটাক্ষ করে কথা বলার কারণেই এ ঘটনা ঘটান তিনি। ঘটনার পর রুনা আক্তারকে একটি কক্ষে আটকে রেখেছে তার পরিবার। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, ত্রিশাল পৌর এলাকার ৬নং ওয়ার্ডের নওধার এলাকার আবু সাঈদ (৪৫)  ও রুনা আক্তার (৩৬) দম্পতির ঘরে একে একে ৪ ছেলে ও এক মেয়ের জন্ম হয়।
সবশেষ ১লা অক্টোবর তাদের ঘরে আরো একটি ছেলে শিশুর জন্ম হয়। ঘন ঘন সন্তান হওয়ায় এলাকার লোকজন তাদের কটাক্ষ করে কথা বলতো। গত মঙ্গলবার রাতে কাউকে কিছু না বলে রুনা আক্তার বাড়ির পাশে পুকুরের পানিতে শিশুটিকে নিক্ষেপ করেন। বুধবার সকাল পর্যন্ত সে কাউকে কিছু না বললে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তাকে চাপ সৃষ্টি করে। এলাকার লোকজন বলতে শুরু করে সে সন্তানকে বিক্রি করে দিয়েছে। চাপের মুখে সে স্বীকার করে তার ছেলেকে সে নিজেই পুকুরে ফেলে দিয়েছেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এলাকার লোকজন মরদেহ উদ্ধার করেন। নিহত ছেলে শিশুর নাম রাখা হয়নি। এ ঘটনার পর এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলেও বিকেল সোয়া ৪টা পর্যন্ত পুলিশ সেখানে যায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর