× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, শুক্রবার
ঢাকা আবাহনীর জায়গায় গোকুলাম কেরালা

শেখ কামাল কাপ ফুটবল মাঠে গড়াচ্ছে আজ

খেলা

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ৯:০৪

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট মাঠে গড়াচ্ছে আজ। চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় গত দুই আসরের দুই চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী-মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ক্লাবের লড়াই দিয়ে পর্দা উঠছে এবারের টুর্নামেন্টের। টুর্নামেন্ট শুরু আগমুহূর্তে ঢাকা আবাহনী নাম প্রত্যাহার করে নেয়ায় বিপাকে পড়ে গিয়েছিল আয়োজক কমিটি। তবে ঢাকা আবাহনীর পরিবর্তে কেরালার গোকুলাম এফসিকে নেয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবের সেক্রেটারী ও টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির কো-অর্ডিনেটর শাকিল মাহমুদ চৌধুরী গতকাল বলেন, ‘টুর্নামেন্ট শুরুর আগে এমন পরিস্থিতি অবশ্যই কাম্য নয়। তবে আমরা ঢাকা আবাহনীর জায়গায় ভারতের একটি দলকে নিয়েছি। ক্লাবটির নাম গোকুলাম কেরালা।’
ঢাকা আবাহনী সরে দাঁড়ানোয় ‘ডেথ গ্রুপ’ খ্যাত ‘বি’ গ্রুপে লড়বে বসুন্ধরা কিংস, মালয়েশিয়ার টেরেঙ্গানু এফসি ও ভারতের চেন্নাই সিটি এফসি ও কেরালার গোকুলাম এফসি। ‘এ’ গ্রুপে আছে মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস, ভারতের মোহন বাগান অ্যাথলেটিক ক্লাব, লাওসের ইয়ং এলিফেন্ট এফসি ও স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী।
টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরে অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে ১০ হাজার ডলার করে দেয়া হবে।
টুর্নামেন্টের রানার্সআপকে প্রাইজমানি হিসেবে ২৫ হাজার ডলার ও চ্যামিপয়ন দলকে দেয়া হবে ৫০ হাজার ডলার। প্রথম আসরে চ্যামিপয়ন হয়েছিল চট্টগ্রাম আবাহনী, দ্বিতীয় আসরে টিসি সেপার্টস। এবারো জমজমাট একটি টুর্নামেন্টের আশায় সবাই। ২০১৫ সালে প্রথম আসরে কলকাতার ইস্ট বেঙ্গলকে হারিয়ে শিরোপা জেতে চট্টগ্রাম আবাহনী। হারানো শিরোপা ফিরে পেতে মরিয়া চট্টগ্রাম আবাহনী শুরুটা ভালো চায়। এ প্রসঙ্গে শাকিল মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘টুর্নামেন্টে প্রতিটি দলেরই লক্ষ্য শিরোপা জেতা। আমাদের ঘরের মাটিতে টুর্নামেন্ট। অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য থাকবে ভালো করার। প্রথম আসরে শিরোপা জিতেছিলাম। গত আসরে ধরে রাখতে না পারলেও এবার আমাদের লক্ষ্য হারানো শিরোপা পুনরুদ্ধার করা। সেই লক্ষ্য পূরণে আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ এগুতে চাই।’
১১ দিনের এ টুর্নামেন্টের পর্দা নামবে আগামী ৩০শে অক্টোবর। গ্রুপ পর্ব চলবে ২৫শে অক্টোবর পর্যন্ত। ৮টি ক্লাব গ্রুপে মোট ১২ ম্যাচে মুখোমুখি হবে। এরপর একদিন বিরতি দিয়ে ২৭শে অক্টোবর হবে প্রথম সেমিফাইনাল। পরদিনই দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। শেষ চার শেষে একদিনের বিরতি দিয়ে ৩০শে অক্টোবর হবে ফাইনাল ম্যাচ।
এর আগে গত বৃহসপতিবার রাতে নগরীর পাঁচ তারকা হোটেল রেডিসন ব্লুতে হয় জমজমাট ট্রফি উম্মোচন অনুষ্ঠান। ট্রফির আনুষ্ঠানিক উন্মোচন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল। অনুষ্ঠানে জাহিদ হাসান বলেন, ‘চট্টগ্রাম আবাহনীর এমন আয়োজন অন্যান্য ক্লাবগুলোর জন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’ অনুষ্ঠান শেষে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের হাতে ট্রফিটি হস্তান্তর করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব আক্তার হোসেন, চিফ হুইপ সামসুল হক চৌধুরী, চট্টগ্রামের সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল মান্নান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস, পুলিশ কমিশনার মাহবুবর রহমান, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর