× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২০ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার

ধামরাইয়ে শিক্ষকের হাতে বলৎকারের শিকার ছাত্র

অনলাইন

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি | ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ১২:৩২

ঢাকার ধামরাইয়ে একের পর এক শিশু ধর্ষণের ঘটনা বেড়েই চলেছে। বিভিন্ন শ্রেণির ৫ শিক্ষার্থী ধর্ষণের পর শুক্রবার নিজ রুমে ঢেকে নিয়ে মাদ্রাসার এক ছাত্রকে বলৎকার করেছে মাদ্রাসার শিক্ষক।  এঘটনায় গত শুক্রবার রাতে ওই শিক্ষককে  আটকের পর ধামরাই থানায় সোর্পদ করেছে। শনিবার তাকে আদালতে প্রেরন করে পুলিশ।
জানা গেছে, ধামরাই পৌর এলাকার মোহাম্মদিয়া হাফিজিয়া ওয়ারিয়া মাদ্রাসার মক্তব বিভাগের শিক্ষক ইকবাল হোসেন শুক্রবার সকালে ওই ছাত্রকে ঢেকে তার রুমে নিয়ে মুখ বেঁধে বলৎকার করে। পরে ছাত্রকে বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য ভয়ভীতি দেখায় শিক্ষক।  দুপুরে বাসায় গিয়ে তার পরিবারের কাছে শিক্ষকের এমন নোংরা কর্মকান্ড খুলে বলে ছাত্র। সন্ধ্যায় পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা এসে ওই শিক্ষকে আটক করে মাদ্রাসার ছাদে খুটি সঙ্গে বেঁেধ জিজ্ঞাসা করা হয়। এসময়  ছাত্রকে বলৎকারের কথা স্বীকার করে মাদ্রাসার শিক্ষক এবং ভুল হয়েছে বলে  সকলের কাছে ক্ষমা চান।
বলৎকাকার করা  শিক্ষকের বাড়ি গাজীপুর জেলার জয়দেপুর থানার মাষ্টার বাড়ি গ্রামে। তার পিতার নাম জহিরুল ইসলাম।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ২:৫০

মাদ্রাসা শিক্ষকরা সমাজের এমন এক স্তরের লোক (অত্যন্ত গরীব ও মূর্খ পরিবার থেকে আগত) সেই পরিবার থেকে তারা ভাল সামাজিক শিক্ষা পায় নি। কিছু আরবী বিদ্যা মাদ্রাসায় সম্বল করে শিক্ষক হয়েছে।

Reza
২০ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার, ১২:১৭

বিচারহীনতা একটা দেশের সমাজকে ব্যাবস্থাকে কতটা নিম্ন পর্যায়ে নিয়ে যায় বর্তমান সামাজিক পরিস্থিতি তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ ।ধর্ষণ ,বলাৎকারের শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারলে আইন,কোর্ট ,মোকাদ্দমা ইত্যাদি মূল্যহীন হয়ে পড়ে।ধর্ষণের বিচার ব্যাবস্থার গতি খুবই শ্লথ ।অন্তত এই ব্যাপারে সুধী-সমাজের দৃষ্টি দেয়া উচিত।

অন্যান্য খবর