× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার

অনুমতি ছাড়াই ফ্রান্সের ৮ নাগরিক খাগড়াছড়িতে

অনলাইন

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি | ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ৩:০৯

কোনো অনুমতিপত্র ছাড়াই ফ্রান্সের ৮জন নাগরিক গতকাল রাতে রামগড় চেকপোস্ট টপকে খাগড়াছড়িতে প্রবেশ করেছে। এরপর তারা খাগড়াছড়ি থেকে আবার জেলার দীঘিনালা উপজেলায় যান। কোনো অনুমতিপত্র না থাকায় দীঘিনালা থানা পুলিশ তাদের আবার জেলায় ফেরত পাঠিয়েছে।

জানা যায়, ৮জনের মধ্যে ১জনের বাড়ি খাগড়াছড়ির দীঘিনালায়। তার নাম হল বুদ্ধজয় চাকমা (৪১)।
তার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বুদ্ধজয় চাকমা বাংলা ভাষা জানেন না। তিনি বলেন, ছোট সময় তিনি দীঘিনালা থেকে ফ্রান্সে চলে যান। সেখানে বড় হন, সেদেশেই বিয়ে করেন এবং সেদেশে নাগরিকত্ব পান। দীর্ঘদিন পর তিনি ফ্রান্সের বন্ধু ও মেহমানকে সঙ্গে নিয়ে তার জন্মস্থানে বেড়াতে এসেছেন।
তারা বাংলাদেশে (খাগড়াছড়ি) চলতি মাসের ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত  থাকবেন।

রামগড় থানার ওসি আব্দুল হান্নান বলেন, দিন-রাত সর্বক্ষণ চেকপোস্টে পুলিশ ডিউটিতে থাকে। যে বিদেশীরা খাগড়াছড়িতে এসেছে তারা আমাদের কাছে কোনো তথ্য দেয়নি। সম্ভবত তারা কোনো বিকল্প সড়ক ব্যবহার করেছে।

দীঘিনালা থানার ইনচার্জ উত্তম দেব বলেন, কোনো অনুমতিপত্র ছাড়া ফ্রান্সের ৮জন নাগরিক দীঘিনালায় এসেছিল। আমরা তাদের জেলায় ফেরত পাঠিয়েছি।

খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উউজ্জামান বলেন, পুলিশকে কোনো তথ্য না দিয়ে অনুমতিপত্র ছাড়াই তারা খাগড়াছড়িতে প্রবেশ করেছে। এদের অনুমতি না থাকায় এখানের আইনশৃংখলা সংক্রান্ত সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে তাদের ফেরত পাঠানো হবে। তবে তারা চেকপোস্ট টপকে কিভাবে আসলো সে বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, আমার কাছে এরকম কোনো তথ্য আসেনি। অনুমতি ছাড়া কোন বিদেশির অবস্থান করা অন্যায়। আমরা কাউকে অনুমতি পত্র দেইনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ahammad
১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার, ২:৪৪

আপনারা সবাই শুধু তদন্তই করবেন, আর সেই তদন্ত প্রতিবেদন আপনাদের চাকুরী শেষ হয়ে গেলেও হয়ত আর পাওয়া যাবে না ।

অন্যান্য খবর