× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার

‘বর্ণবাদ’ ইস্যুতে এফএ কাপের ম্যাচ বাতিল

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ২:৫৮

ইউরো ২০২০ বাছাইপর্বে বুলগেরিয়ার মাঠে খেলতে যাওয়ার পর থেকে ‘বর্ণবাদ’ ইস্যুতে সরগরম ইংল্যান্ড ফুটবল। এর মাঝে নতুন করে ইংল্যান্ডে আবার বর্ণবিদ্বেষ হয়ে উঠেছে খবরের মূল শিরোনাম। ইংল্যান্ডের সবচেয়ে পুরানো টুর্নামেন্ট এফএ কাপের ম্যাচে বর্ণবাদমূলক আচরণের কারণে বাতিল হয়ে যায় একটি ম্যাচ।
শনিবারে টটেনহ্যামের কোলস পার্ক স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের চতুর্থ বাছাইপর্বে হ্যারিংগে বরোর মুখোমুখি হয় সফরকারি ইয়োভিল টাউন। ম্যাচের ৬৪তম মিনিটের খেলা চলছিলো। অতিথি দল ১-০ গোলে এগিয়ে। এমন সময় ইয়োভিল টাউনের সমর্থকদের কাছ থেকে বর্ণবাদী আচরণের শিকার হন স্বাগতিক দলের খেলোয়াড়েরা। এই ঘটনায় খেলোয়াড়দের নিয়ে মাঠ ছেড়ে যান হ্যারিংগে বরো’র কোচ টম লয়জু।
ইংল্যান্ডের গণমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, ইয়োভিল টাউনের গ্যালারি থেকে স্বাগতিক দলের গোলরক্ষক ভালেরি ডগলাসের এর দিকে থুতু ও কিছু একটা ছুড়ে মারা হয়। হ্যারিংগের কোচ বলেন, ‘আমার দলের গোলরক্ষক ও ডিফেন্ডার কোবি রো ‘বর্ণবাদের শিকার হয়।
এই ঘটনার পর আমি খেলা চালিয়ে যেতে দিতে পারি না। যদি এরজন্য আমরা শাস্তি পাই কিংবা টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় করে দেওয়া হয়, তারপরও আমি পরোয়া করি না।’ তবে এই ঘটনায় অতিথি খেলোয়াড় ও কোচের কোনো দায় দেখছেন না টম লয়জু।
গত সপ্তাহের মঙ্গলবার ইউরো বাছাইয়ে বুলগেরিয়ার মাঠে ইংল্যান্ড দল বর্ণবাদের শিকার হওয়ার ঘটনায় বৃটিশ সরকার রব জনসন সমালোচনা করেন। উয়েফা কর্তৃপক্ষের কাছে বর্ণবাদ বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে চিঠিও প্রেরণ করেন। এই ঘটনায় বুলগেরিয়া ফুটবল ইউনিয়নের সভাপতিসহ ও কোচ পদত্যাগ করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর